নরসিংদী ৪ (মনোহরদী-বেলাব) নৌকার কাণ্ডারি হয়ে ভোটারদের আস্থা অর্জন করেছেন আসলাম সানী

নিজস্ব প্রতিবেদক:

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বেলাব-মনোহরদী উপজেলা নিয়ে গঠিত নরসিংদী-৪ আসনে এবার নৌকার কাণ্ডারি হতে চান শক্তিশালী প্রার্থী শিল্পপতি এএইচ অহিদুল হক আসলাম সানী। বাংলাদেশ ভলিবল ফেডারেশনের সহসভাপতি, বিকেএমইএর সাবেক জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি, নরসিংদী জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক উপদেষ্টা ও ক্রোনী গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক দানবীর ও সৎ মানুষ হিসেবে পরিচিত আসলাম সানীর জয়গান এবার বেলাব-মনোহরদী আসনের ভোটারদের মুখে মুখে। এদিকে সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে বেলাব ও মনোহরদীর প্রতিটি ইউনিয়ন ও গ্রামে প্রচার চালাচ্ছেন আসলাম সানী।

ব্যানার, ফেস্টুন ও পোস্টারে দুই উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় বর্তমান সরকারের নানা উন্নয়নের চিত্র তুলে ধরছেন আসলাম সানী। বিভিন্ন সভা-সেমিনারের পাশাপাশি রাজনৈতিক, সামাজিক ও ধর্মীয় অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করছেন। দুই উপজেলার স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসাসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে অনুদান, গরিব ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের আর্থিক সহযোগিতা দিয়ে দুই উপজেলার মানুষের প্রিয়পাত্র হয়ে উঠেছেন।

কয়েক দিন আগে চরউজিলাব ইউনিয়নের চেয়ারম্যান অধ্যাপক আক্তারুজ্জামানের উদ্যোগে মনোনয়নপ্রত্যাশী আসলাম সানীর অর্থায়নে বেলাব উপজেলার চর উজিলাব ইউনিয়নকে বাল্যবিয়ে ও ভিক্ষুকমুক্ত ঘোষণা করা হয়েছে। এ সময় আসলাম সানী উপস্থিত থেকে স্থানীয় অর্ধশতাধিক ভিক্ষুককে নিজ অর্থায়নে অটোরিকশা কিনে দিয়েছেন। আওয়ামী লীগের তৃণমূল নেতৃবৃন্দের খোঁজ-খবর নেওয়াসহ দলীয় কোন্দল নিরসনে ভূমিকা রেখে তিনি দলীয় নেতৃবৃন্দেরও প্রশংসা কুড়িয়েছেন। এলাকার শিক্ষিত বেকার যুবকদের নিজ মালিকাধীন ক্রোনী গ্রুপের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে চাকরি দিয়ে বেকার সমস্যা নিরসনেও ভূমিকা রেখেছেন। তাই এলাকাবাসীও আসলাম সানীকেই চান তাদের পাশে।

আসলাম সানীর সঙ্গে স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরাও দিনরাত বিভিন্ন এলাকায় উঠান বৈঠক, সভা, সমাবেশের মাধ্যমে গণসংযোগ চালাচ্ছেন। সরেজমিন উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় ঘুরে দেখা গেছে, হাট, বাজার, চায়ের দোকান থেকে শুরু করে ভোটারদের মুখে মুখে আসলাম সানীর জয়গান। তাদের অভিমত, সৎ প্রার্থী হিসেবে আসলাম সানীর বিকল্প নেই। তাকে নৌকার মনোনয়ন দিলে তিনি বিপুল ভোটে বিজয়ী হবেন।

বেলাব উপজেলা আওয়ামী লীগের সংস্কৃতিবিষয়ক সম্পাদক ও সাবেক চর উজিলাব ইউনিয়নের চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম বলেন, এক কথায় সানী ভাই আওয়ামী লীগের দুঃসময়ের কাণ্ডারি। বেলাব-মনোহরদীবাসীর কাছে সানী ভাইয়ের গ্রহণযোগ্যতা অনেক বেশি। তার কাছেই আওয়ামী লীগ নিরাপদ। বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান অধ্যাপক আক্তারুজ্জামান মনে করেন, আসলাম সানীর বিকল্প নেই। তিনি সৎ এবং যোগ্য প্রার্থী। তাকে মনোনয়ন দিলে তিনি বিজয়ী হবেন। বেলাব উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান শমসের জামান ভূঁইয়া রিটন বলেন, আসলাম সানীকে মনোনয়ন দেওয়া হলে এই আসনে নৌকার বিজয় কেউ ঠেকাতে পারবে না।

এদিকে মনোনয়নপ্রত্যাশী এএইচ আসলাম সানী বলেন, বেলাব-মনোহরদী উপজেলা নিয়ে গঠিত এই আসনটিতে উন্নয়নের ছোঁয়া লাগেনি। অবহেলিত এই এলাকার রাস্তাঘাট থেকে শুরু করে অবকাঠামোগত কোনো উন্নয়নই হয়নি। দলের মনোনয়ন পেলে আমি নতুন ধারার রাজনীতি পাশাপাশি এই এলাকার উন্নয়নে ভূমিকা রাখব।