স্বামীকে চান অপু, শাকিব বিচ্ছেদে অনড়

ছবিঃ সংগৃহীত
ছবিঃ সংগৃহীত

স্বামী শাকিব খানের সঙ্গে বিচ্ছেদ চান না বলে নিজের জবানবন্দিতে জানিয়েছেন চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাস। তাঁর দাবি, তাঁদের দুজনের মধ্যে অন্যরা ভুল বোঝাবুঝির সৃষ্টি করেছে।

আজ সোমবার ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (অঞ্চল ৩) প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. হেমায়েত হোসেনের কাছে দেওয়া জবানবন্দিতে এসব কথা বলেন অপু বিশ্বাস।

শুনানিতে অপু বলেন, ‘আমার একটা সন্তান রয়েছে, আমি এখন বিচ্ছেদ চাই না। তা ছাড়া শাকিব খান যে অভিযোগগুলো করেছেন এগুলো ঠিক নয়। শাকিবকে আমি পাচ্ছি না, ভেবেছিলাম আজ এখানে আসবেন, আমাদের দেখা হবে। ওর সাথে সরাসরি দেখা করে কথা বললে হয়তো সব ঠিক হয়ে যেত। ওর জন্য আমি ধর্ম পর্যন্ত ত্যাগ করেছি। আমাদের মাঝে যে ভুল বোঝাবুঝি হয়েছে, তাঁকে আসলে অন্যরা ভুল বুঝিয়েছে।’

এর আগে দুপুর ১টার দিকে শাকিব খানের পাঠানো তালাকের নোটিশের ওপর শুনানিতে অংশ নিতে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনে (অঞ্চল-৩) যান অপু বিশ্বাস। সেখানেই নিজের বক্তব্য তুলে ধরেন তিনি।

অন্যদিকে থাইল্যান্ডে একটি চলচ্চিত্রের গানের শুটিংয়ে ব্যস্ত থাকায় আজ শুনানিতে উপস্থিত ছিলেন না শাকিব খান। তবে তাঁর পক্ষে উপস্থিত ছিলেন আইনজীবী অ্যাডভোকেট সিরাজুল ইসলাম। তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘শাকিব খান এখন দেশের বাইরে শুটিং করছেন, যে কারণে তিনি আসতে পারেননি। তিনি আসলে কোন সমঝোতা চান না। তিনি তাঁর সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করবেন না। শাকিবের এই বক্তব্য আমরা সিটি করপোরেশনের অঞ্চল ৩-এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে পেশ করেছি।’

ছবিঃ সংগৃহীত

এ বিষয়ে সিটি করপোরেশনের অঞ্চল ৩-এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. হেমায়েত হোসেন বলেন, ‘আমরা সমঝোতার চেষ্টা করছি। কাউকে জোর করা আমাদের কাজ নয়। তবে ৯০ দিনের মধ্যে বিষয়টির সমঝোতা না হলে এমনিতেই তালাক কার্যকর হয়ে যাবে। তবে আমরা আবারও চেষ্টা করব, এজন্য আগামী ১২ ফেব্রুয়ারি আবারও বৈঠক ডাকা হয়েছে।’

এর আগে গত বছরের ডিসেম্বর মাসে অপু বিশ্বাসকে তালাকের নোটিশ পাঠান শাকিব খান। তালাকের একটি কপি ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনে পাঠানো হয়। তারই সূত্র ধরে আজ শুনানির দিন নির্ধারণ করা হয়। গত ২৪ ডিসেম্বর একটি চিঠির মাধ্যমে আজ সিটি করপোরেশনে হাজির হতে শাকিব খান ও অপু বিশ্বাসকে বলা হয়।

গত বছর এপ্রিলে ঢাকাই ছবির নতুন নায়িকা শবনম বুবলীর সঙ্গে শাকিব ঘরোয়া পরিবেশে একটি ছবি তোলেন। ছবিটিতে ‘ফ্যামিলি টাইম’ক্যাপশন লিখে নিজের সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে প্রকাশ করেন বুবলী। এর পরই অপু বিশ্বাসের সঙ্গে সম্পর্কের অবনতি ঘটে শাকিব খানের। ছবিটি প্রকাশের পর পরই গণমাধ্যমে দীর্ঘদিন গোপনে থাকা বিয়ে ও সন্তানের বিষয়টি খোলাসা করেন অপু।