ভাইয়ের প্রাণের বিনিময়ে বাঁচলো বোনের জীবন

১৮ জুন ২০১৯, ০৫:৫২ পিএম | আপডেট: ২১ আগস্ট ২০১৯, ০৫:২৯ পিএম


ভাইয়ের প্রাণের বিনিময়ে বাঁচলো বোনের জীবন
পানিতে-ডুবে-মারা

অনলাইন ডেস্ক

টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে বোনকে বাঁচাতে গিয়ে পানিতে ডুবে মারা গেছেন ভাই। সোমবার বেলা আড়াইটার দিকে মির্জাপুর উপজেলার জামুর্কী ইউনিয়নের গুনটিয়া গ্রামের লৌহজং নদে এই ঘটনা ঘটে।

নিহত ব্যক্তির নাম নীরব হোসেন (২৬)। তিনি উপজেলার বানাইল ইউনিয়নের গল্লী গ্রামের ফজলুল হকের ছেলে। তিনি পোশাক কারখানার শ্রমিক ছিলেন এবং গুনটিয়া গ্রামে ভাড়া বাসায় থাকতেন।

পরিবার ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, সোমবার বেলা আড়াইটার দিকে নীরব হোসেন তাঁর ছোট বোন সুমাইয়া আক্তার (৮) ও স্ত্রীকে নিয়ে লৌহজং নদে গোসল করতে যান।
কিন্তু তাঁরা কেউই সাঁতার জানতেন না। গোসলের একপর্যায়ে তাঁর ছোট বোন পানিতে ডুবে যাচ্ছিল। এ সময় বোনকে বাঁচাতে এগিয়ে যান তিনি। বোনকে তীরে ঠেলে দিতে পারলেও শেষ পর্যন্ত নদীতে ডুবে মারা যান নীরব।

খবর পেয়ে সোমবার রাত আটটা পর্যন্ত এলাকাবাসীর সঙ্গে মির্জাপুর ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা নীরবের লাশ উদ্ধারের চেষ্টা চালান। কিন্তু তাঁর লাশ খুঁজে পাওয়া যায়নি। মঙ্গলবার সকালে ফের অভিযান চালিয়ে ঘটনাস্থল থেকে একটু দূরে নীরবের লাশ পাওয়া যায়।

মির্জাপুর ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের স্টেশন কর্মকর্তা মো. আরিফুর রহমান প্রথম আলোকে বলেন, নীরবের লাশ তাঁর পরিবারের সদস্যদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। গুনটিয়া গ্রামের বাসিন্দা তৌফিকুর রহমান তালুকদার বলেন, ‘বিষয়টি খুবই মর্মান্তিক। এ ঘটনায় গ্রামবাসীর মধ্যে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।’


বিভাগ : বাংলাদেশ