গণমাধ্যমের বিরুদ্ধে সালমান, শাহরুখ, আমির খানদের মামলা দায়ের

১৪ অক্টোবর ২০২০, ০১:৫৫ পিএম | আপডেট: ২৯ অক্টোবর ২০২০, ১০:০১ পিএম


গণমাধ্যমের বিরুদ্ধে সালমান, শাহরুখ, আমির খানদের মামলা দায়ের
ফাইল ছবি

বিনোদন ডেস্ক:

মানহানিকর সংবাদ পরিবেশনের অভিযোগে মিডিয়ার বিরুদ্ধে মামলা করেছে বলিউডের ৩৪টি প্রযোজনা সংস্থা ও চলচ্চিত্র সংগঠন। সেসবের মধ্যে রয়েছে বলিউড তারকা সালমান খান, শাহরুখ খান, আমির খান, করণ জোহরদের প্রতিষ্ঠানও।

ভারতীয় বেশ কয়েকটি গণমাধ্যমে দায়িত্বজ্ঞানহীন, অবমাননাকর এবং মানহানিকর খবর প্রকাশের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে মামলা দায়ের করেছে সালমান খান ফিল্মস, রেড চিলিস এন্টারটেইনমেন্ট, আমির খান ফিল্মসসহ বলিউডের ওই প্রতিষ্ঠানগুলো। রিপাবলিক টিভি, টাইমস নাও এবং এ দুই চ্যানেলের চার সংবাদকর্মী অর্ণব গোস্বামী, প্রদীপ ভান্ডারি, রাহুল শিবশঙ্কর এবং নভিকা কুমারের বিরুদ্ধে দিল্লি হাইকোর্টে মামলা করেছে প্রতিষ্ঠানগুলো। মামলায় চ্যানেলগুলোতে বলিউডের বিরুদ্ধে ব্যবহার করা ‘নোংরা’, ‘দূষিত’, ‘মাদকাসক্ত’ শব্দগুলো ব্যবহারের তীব্র আপত্তি জানানো হয়েছে।

বলিউড নিয়ে খবর প্রকাশের ক্ষেত্রে ‘ময়লা’, ‘নোংরামি’, ‘কলঙ্ক’, ‘মাদক’-এর মতো অবমাননাকর শব্দ ব্যবহার করায় প্রতিষ্ঠানগুলো এ পদক্ষেপ নিয়েছে। অভিযুক্ত সংবাদমাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ‘বলিউডের ময়লা পরিষ্কার করা দরকার’, ‘আরবের সব সুগন্ধি এনেও বলিউডের এই দুর্গন্ধ দূর করা যাবে না’, ‘কোকেন ও এলএসডি বলিউডকে ডুবিয়েছে’-এর মতো ভাষা ব্যবহার করার অভিযোগ তুলেছে মামলার বাদীরা।

বলিউডের সুনাম বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়েছে। বেশ কয়েক বছর ধরে বিদেশে বলিউডের ছবি দেখিয়ে ভারত প্রচুর বৈদেশিক মুদ্রা আয় করছে। সিনেমার কারণে ভারতে বেড়েছেন পর্যটক। এই শিল্পে বহু মানুষের কর্মসংস্থান হয়েছে। করোনাকালে এমনিতেই সংকটে পড়েছে এই শিল্প। দীর্ঘদিন যাবৎ শুটিং বন্ধ থাকায় কাজ হারিয়েছেন বহু মানুষ। এ রকম এক পরিস্থিতিতে তারকাদের ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে প্রকাশ করা এসব ‘ভিত্তিহীন’ খবরে ইন্ডাস্ট্রির ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হয়েছে বলে মনে করেন সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা।

বলিউড তারকা সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু নিয়ে ধোঁয়াশা ও এর তদন্তে উঠে আসে তাঁর মাদক গ্রহণের ইতিবৃত্ত। সেই সূত্র ধরে বেরিয়ে আসে বলিউডের বহু তারকার নাম, যাঁরা মাদক গ্রহণ করেন। আরেক বলিউড তারকা কঙ্গনা রনৌত বলেই ফেলেন, বলিউডের বেশির ভাগ তারকাই মাদক সেবন করেন। এ নিয়ে একের পর এক সংবাদ ও বিশ্লেষণ প্রকাশ ও প্রচার করতে থাকে ভারতীয় একটি টেলিভিশন ও সংবাদমাধ্যম। এতে ক্ষুব্ধ পুরো বলিউড।

বাদীর তালিকায় আছে আমির খান প্রোডাকশনস, অজয় দেবগন ফিল্মস, অনিল কাপুর ফিল্ম অ্যান্ড কমুনিকেশন নেটওয়ার্ক, আরবাজ খান প্রোডাকশনস, আশুতোষ গোয়ারিকর প্রোডাকশনস, ধর্ম প্রোডাকশনস, কবির খান ফিল্মস, রাকেশ ওমপ্রকাশ মেহরা পিকচার্স, রিলায়ার্ন বিগ এন্টারটেনমেন্ট, রিল লাইফ প্রোডাকশনস, রোহিত শেতুপাঠি পিকচার্স, সালমান খান ভেঞ্চার্স, বিশাল ভরদ্বাজ ফিল্ম ও যশরাজ ফিল্মসের মতো বাঘা সব প্রতিষ্ঠান।

সুশান্তর অপমৃত্যুর তদন্ত করতে গিয়ে যখন বলিউডের সঙ্গে মাদকের গভীর সংযোগের রহস্য ফাঁস হয়, তখন আসতে থাকে অনেক তারকার নাম। সুশান্তর প্রেমিকা রিয়া চক্রবর্তীর হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাটের ভিত্তিতে নারকোটিকস কন্ট্রোল ব্যুরো (এনসিবি) তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে। এনসিবির জিজ্ঞাসাবাদে রিয়া জানান ২৫ জন বলিউড তারকার নাম, যাঁরা মাদককাণ্ডে জড়িত। তাঁদেরও জিজ্ঞাসাবাদ করে এনসিবি। সেই তারকারা হলেন দীপিকা পাড়ুকোন, শ্রদ্ধা কাপুর, সারা আলী খান, রাকুল প্রীত সিং, নকশাকার সিমোন খমবাট্টা।


বিভাগ : বিনোদন


এই বিভাগের আরও