পলাশে শিশু ধর্ষণের অভিযোগে একজন গ্রেপ্তার

২০ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ০৭:১৬ পিএম | আপডেট: ২১ এপ্রিল ২০২৪, ০৪:০৬ পিএম


পলাশে শিশু ধর্ষণের অভিযোগে একজন গ্রেপ্তার

পলাশ প্রতিনিধি:
নরসিংদীর পলাশে মক্তব (মাদ্রাসা) থেকে ফেরার পথে ৮ বছরের এক শিশুকে মুখ চেপে ধরে রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় সোমবার রাতে অভিযুক্ত আব্দুর রহমান (৩৬) নামে একজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।


এর আগে সোমবার সকাল ৮ টার দিকে পলাশ উপজেলার মধ্য বাগপাড়া এলাকায় এ ধর্ষণের ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছেন পলাশ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ ইকতিয়ার উদ্দিন।

গ্রেপ্তারকৃত আব্দুর রহমান উপজেলার ঘোড়াশাল পৌর এলাকার মধ্য বাগপাড়া গ্রামের আব্দুল কুদ্দুস মিয়ার ছেলে।

পুলিশ ও ভুক্তভোগী পরিবারের সাথে কথা বলে জানা গেছে, সোমবার সকাল ৮ টার দিকে মাদ্রাসার মক্তব থেকে বাড়ি ফিরছিল ওই শিশু। মধ্য বাগপাড়া গ্রামের কিরণ মিয়ার বাড়ির কাছে আসার পর আগে থেকেই উৎপেতে থাকা আব্দুর রহমান শিশুটির মুখে চাপ দিয়ে ধরে রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে যায়। পরে একটি টিনশেড ঘরে নিয়ে খুন-জখমের ভয় দেখিয়ে ধর্ষণ করে। ঘটনার পর সকাল ৯ টার দিকে ভুক্তভোগী ওই শিশুটিকে অসুস্থ অবস্থায় ছেড়ে দিলে শিশুটি বাড়িতে গিয়ে ঘটনা জানায়। এসময় স্থানীয় বাসিন্দারা থানা পুলিশকে ঘটনাটি অবহিত করেন।

পলাশ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ ইকতিয়ার উদ্দিন জানান, শিশু ধর্ষণের খবর পাওয়ার পর ঘোড়াশাল ফাঁড়ি পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) মো. মাজেদুল রহমানকে ঘটনাস্থলে পাঠানো হলে অভিযুক্ত আব্দুর রহমান পালিয়ে যায়। পরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ও তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় সোমবার রাতেই অভিযুক্ত আব্দুর রহমানকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয় থানা পুলিশের একটি দল।


ওসি আরও জানান, গ্রেপ্তারের পর প্রাথমিকভাবে পুলিশী জিজ্ঞাসাবাদে ধর্ষণের কথা স্বীকার করেছে আব্দুর রহমান। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী শিশুটির মা বাদী হয়ে থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেছেন। ওই মামলায় অভিযুক্ত আব্দুর রহমানকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানোসহ ভুক্তভোগী শিশুটিকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য নরসিংদী সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।



এই বিভাগের আরও