শিবপুরে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে কাভার্ড ভ্যানের হেলপারের মৃত্যু

১২ এপ্রিল ২০২১, ০৫:৪৭ পিএম | আপডেট: ১৫ মে ২০২১, ০৬:৪৭ পিএম


শিবপুরে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে কাভার্ড ভ্যানের হেলপারের মৃত্যু

মোমেন খান:
নরসিংদীর শিবপুরে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে জাকির হোসেন (২২) নামে কাভার্ড ভ্যানের এক হেলপারের মৃত্যু হয়েছে। সোমবার (১২ এপ্রিল) দুপুরে শিবপুরের দুলালপুর ইউনিয়নের দুলালপুর বাজারে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত জাকির হোসেন ভোলা জেলার চরফ্যাশন উপজেলার ওসমানগঞ্জের কুট্টি মিয়ার ছেলে। তিনি চট্টগ্রামের একটি ব্লেড কারখানার নিজস্ব পরিবহন হিসেবে ব্যবহৃত একটি কাভার্ড ভ্যানের চালকের সহকারী ছিলেন।

কাভার্ডভ্যানের ড্রাইভার মাসুম মিয়া জানান, আজ দুপুর ১২টার দিকে দুলালপুর বাজারে লবনবাহী একটি কাভার্ড ভ্যান এসে থামে। এ সময় ওই কাভার্ড ভ্যানটির ওপর গাছের একটি ডাল আটকে যাওয়ায় তা অপসারণ করতে গাড়ির ছাদে উঠেন জাকির হোসেন। গাছের ডাল সরানোর সময় ওপরে ঝুলে থাকা বৈদ্যুতিক তারে স্পৃষ্ট হন তিনি। এ সময় ওই কাভার্ড ভ্যানটির ছাদ থেকে ছিটকে সড়কে পড়ে যান তিনি। পরে স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে শিবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখানকার চিকিৎসকরা উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে নরসিংদী সদর হাসপাতালে নিয়ে যেতে পরামর্শ দেন। কিন্তু নরসিংদী সদর হাসপাতালে নেওয়ার পথে তিনি মারা যান।

শিবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম জানান, বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে আহত অবস্থায় এক যুবককে আমাদের হাসপাতালে আনার পর তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে নরসিংদী সদর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়। এর পরে কি ঘটেছে তা আমাদের জানা নেই।

বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে জাকির হোসেনের মৃত্যুর সত্যতা নিশ্চিত করেছেন তার চাচা আলী হোসেন। তিনি জানান, জাকির হোসেন বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মারা গেছেন এমন খবর আমাদের জানানো হয়েছে। তাঁর লাশ নিয়ে একটি অ্যম্বুলেন্সে করে বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা হয়েছেন ওই কাভার্ড ভ্যানটির চালক মাসুম মিয়া।

শিবপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোল্লা আজিজুর রহমান জানান, দুলালপুর বাজারে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে এক কাভার্ড ভ্যানের হেলপার মারা গেছেন শুনে পুলিশ ঘটনাস্থলে গেছে। সেখান থেকে জব্দ করা লবনবাহী ওই কাভার্ড ভ্যানটি ওই ব্লেড কারখানার নয় বলে নিশ্চিত হয়েছে পুলিশ। তবে লবনবাহী অবস্থায় ওই কাভার্ড ভ্যানটি নরসিংদীর শিবপুরে কেন এসেছিল তা জানা যায়নি।