শিবপুরে মা ও মেয়েকে গণধর্ষণ: আরও এক আসামী গ্রেপ্তার

১৮ মার্চ ২০১৯, ০৮:৫৭ পিএম | আপডেট: ১৬ জুলাই ২০১৯, ০৮:১১ এএম


শিবপুরে মা ও মেয়েকে গণধর্ষণ: আরও এক আসামী গ্রেপ্তার

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥
নরসিংদীর শিবপুরের চাঞ্চল্যকর মা ও মেয়ে গণধর্ষণ মামলার মূল আসামি মো. মোখলেছকে (৩৬) গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব। সোমবার (১৮ মার্চ) ভোরে সদর উপজেলার মাধবদী পৌর এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়। মোখলেছ শিবপুর উপজেলার সৃষ্টিগড় এলাকার মৃত চাঁন মিয়ার ছেলে। তাঁর বিরুদ্ধে শিবপুর থানায় ডাকাতি, অস্ত্র ও আইন শৃঙ্খলা বিঘœকারী দ্রুত বিচার আইনসহ নানা অপরাধে ৬টি মামলা রয়েছে।


র‌্যাব-১১ কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, গত শুক্রবার (১৫ মার্চ) মা ও মেয়ে একসঙ্গে ঢাকা থেকে হবিগঞ্জগামী একটি যাত্রীবাহী বাসযোগে বাড়ি ফেরার সময় সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টার দিকে বাসটি ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের শিবপুরের সৃষ্টিগড় বাসষ্ট্যান্ডের অদূরে বিকল হয়ে যায়। এসময় গণধর্ষণ ঘটনার মূলহোতা মোখলেছ (৩৬) ও তার সহযোগী দেলোয়ার হোসেন (৩০), শফিক (২৫), বাদল (৪২), বাবু (২৫) ও মো. আলমগীর (৪০) মা ও মেয়েকে অন্য বাসে উঠিয়ে দেওয়ার কথা বলে কৌশলে সৃষ্টিগড় প্রাইম জুটমিলের পরিত্যক্ত কে নিয়ে পালাক্রমে গণধর্ষণ করে। নির্যাতনের শিকার মা ও মেয়ের চিৎকার শুনে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে আসলে ঘটনাস্থল থেকে মোখলেছ ও তার সহযোগীরা পালিয়ে যায়।


এঘটনায় গণধর্ষণের শিকার মা বাদি হয়ে শিবপুর মডেল থানায় ৬ জনের নাম উল্লেখ করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করেন। এরই পরিপ্রেক্ষিতে বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে পুলিশ অভিযুক্ত দেলোয়ার হোসেন ও শফিককে গ্রেপ্তার করে। পাশাপাশি র‌্যাব-১১ এর একটি বিশেষ আভিযানিক দল গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে সোমবার ভোরে সদর উপজেলার মাধবদী পৌর এলাকায় অভিযান চালিয়ে গণধর্ষণ ঘঁনার মূল হোতা ও পলাতক আসামি মোখলেছকে গ্রেপ্তার করে। পরে বিকেলে তাঁকে শিবপুর মডেল থানায় হস্তান্তর করে।


র‌্যাব-১১ কার্যালয়ের অধিনায়ক লে. কর্ণেল কাজী শামশের উদ্দিন বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, মা ও মেয়ে গণধর্ষণের ঘটনাটি অত্যন্ত চাঞ্চল্যকর ও আলোচিত মামলা হওয়ায় র‌্যাব-১১ গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে অভিযান পরিচালনা করে। এরই ধারাবাহিকতায় গণধর্ষণের মূল আসামি মোখলেছকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বাকি আসামিদের গ্রেপ্তারেও বিভিন্ন এলাকায় অভিযান অব্যাহত রয়েছে।



এই বিভাগের আরও