আতঙ্ক না ছড়িয়ে শক্ত ও সচেতন থাকার পরামর্শ প্রধানমন্ত্রীর

১৯ মার্চ ২০২০, ০৭:১৩ পিএম | আপডেট: ০৮ এপ্রিল ২০২০, ০৮:২০ এএম


আতঙ্ক না ছড়িয়ে শক্ত ও সচেতন থাকার পরামর্শ প্রধানমন্ত্রীর
বক্তব্য রাখছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ছবি: সংগৃহীত

নিজস্ব প্রতিবেদক:

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে আতঙ্ক না ছড়িয়ে শক্ত ও সচেতন থাকতে বলেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেছেন, এটা গ্লোবাল ও ভয়ানক সমস্যা। প্যানিক (আতঙ্ক) করবেন না, শক্ত থাকেন, সচেতন হোন। অপ্রয়োজনীয় চলাফেরা কমিয়ে দায়িত্ব পালন করতে হবে। সহযোগিতার মাধ্যমে সচেতনতা তৈরি করতে হবে। বৃহস্পতিবার (১৯ মার্চ) জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের (এনইসি) সভায় এসব নির্দেশনা দেন প্রধানমন্ত্রী। পরিকল্পনা কমিশনের এনইসি সম্মেলন কক্ষে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় সভাপতিত্ব করেন-প্রধানমন্ত্রী ও এনইসি চেয়ারপার্সন শেখ হাসিনা। এনইসি সভা শেষে সংবাদ সম্মেলনে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান এসব তথ্য জানান।

পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, এনইসি শুরুর প্রথম ১ ঘণ্টা করোনা নিয়ে আমরা আলোচনা করেছি। প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, প্যানিক (আতঙ্ক) করবেন না, শক্ত থাকেন, সচেতন হোন। সহযোগিতার মাধ্যমে সচেতনা তৈরি করতে হবে। প্রধানমন্ত্রীর মূল বার্তা হলো করোনা ভয়ানক সমস্যা। এটা প্রতিরোধ করতে হবে। কাজও করতে হবে। তবে জনগণের সুরক্ষাও দিতে হবে। এ জন্য খুব সীমিত কিছু করার স্বাধীনতা আমাদের আছে। আমাদের সচেতন হতে হবে। এক ধরনের সেল্ফ কোয়ারেন্টাইন। নিজেকে নিজে কোয়ারেন্টাইন করা।

এখন প্রযুক্তির যুগ। মোবাইল, ল্যাপটপ ব্যবহার করা যায়। যোগাযোগ করা যায়। অপ্রয়োজনীয় চলাফেরা কমিয়ে দায়িত্ব পালন করতে হবে। তাই বলে করোনার দোয়াই দিয়ে কোনো কাজ বন্ধ করা হবে না। বরং প্রয়োজনীয় সভা যেমন কেবিনেট ও একনেক সভা হবে। আমাদের আরও পরিশ্রমী ও দক্ষ হতে বলেছেন প্রধানমন্ত্রী বলে জানান পরিকল্পনামন্ত্রী।

পরিকল্পনামন্ত্রী জানান, এনইসি সভায় চলতি (২০১৯-২০) অর্থবছরের জন্য বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচিতে (এডিপি) প্রায় ১০ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ কমানো হয়েছে। কারণ প্রথমে দুই লাখ ২ হাজার ৭২১ কোটি টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছিলো। কিন্তু বিভিন্ন কারণে বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও সংস্থা অর্থ ব্যয় করতে না পারায় কম-বেশি করে সংশোধিত এডিপিতে এক লাখ ৯২ হাজার ৯২১ কোটি টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।


বিভাগ : বাংলাদেশ


এই বিভাগের আরও