ঈদে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে স্বাস্থ্য অধিদফতরের অনুরোধ

৩০ জুলাই ২০২০, ১১:২১ পিএম | আপডেট: ০৪ আগস্ট ২০২০, ১১:০২ এএম


ঈদে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে স্বাস্থ্য অধিদফতরের অনুরোধ
ফাইল ছবি

নিজস্ব প্রতিবেদক:

কোরবানি ঈদের আগে পশুর হাটে, কোরবানির দিনে এবং কোরবানি পরবর্তী সময়ে কঠোরভাবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার জন্য অনুরোধ জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদফতর। বৃহস্পতিবার (৩০ জুলাই) কোভিড-১৯ নিয়ে আয়োজিত নিয়মিত অনলাইন বুলেটিনে এ অনুরোধ জানান অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা।

বুলেটিনে তিনি বলেন, পবিত্র কোরআন শরীফে পশু কোরবানি দেওয়ার নিয়ম রয়েছে, তাই পশুর হাট চলছে, তবে পশুর হাটে ক্রেতা-বিক্রেতা সবার জন্য যেসব স্বাস্থ্যবিধি দেওয়া হয়েছে এবং কোরবানি চলাকালে বাসা-বাড়িতেও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার জন্য বলা হয়েছে। কোরবানি পরবর্তী সময়ের স্বাস্থ্যবিধি মানতে বলা হয়েছে। এ ব্যাপারে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে এবং গণমাধ্যমে প্রচার করা হচ্ছে।

এই রোগ প্রতিরোধের জন্য আমাদের সচেষ্ট এবং সচেতন থাকতে হবে জানিয়ে অধ্যাপক নাসিমা সুলতানা বলেন, ‘যেসব স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার জন্য বলা হচ্ছে, সেগুলো কঠোরভাবে মেনে চলতে হবে। তবেই এ রোগ প্রতিরোধ সম্ভব। এর মধ্যে রয়েছে—সঠিকভাবে মাস্ক পরা, বারবার সাবান-পানি দিয়ে ২০ সেকেন্ড সময় নিয়ে হাত ধোয়া, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা এবং যেখানে অনেক মানুষের সমাগম হয়, সেই জায়গা এড়িয়ে চলা।

সবাই এই স্বাস্থ্যবিধির প্রতি খেয়াল রাখবেন উল্লেখ করে তিনি বলেন, এগুলো মেনে চলতে হবে, তবেই আমরা এ রকম মারাত্মক মহামারি থেকে নিজেদের মুক্ত রাখতে পারবো এবং প্রতিরোধ করতে পারেবো। সবার সমন্বিত প্রচেষ্টা ছাড়া এই রোগ প্রতিরোধ এবং মহামারি মোকাবিলা করা সম্ভব নয়। এখানে প্রত্যেকের অংশগ্রহণ দরকার। সবাইকে সচেতন এবং সচেষ্ট থাকতে হবে। একইসঙ্গে যেকোনও লক্ষণ উপসর্গ সন্দেহ হলে এবং আক্রান্ত ব্যক্তির সংস্পর্শে এলে নমুনা পরীক্ষা করার জন্য অনুরোধ করেন তিনি।

স্বাস্থ্য বুলেটিনে অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা আরো জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে বাংলাদেশে ৪৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে করোনায় মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো ৩ হাজার ৮৩ জনে। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়েছেন দুই হাজার ৬৯৫ জন। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত মোট করোনা পজিটিভ শনাক্ত হলেন ২ লাখ ৩৪ হাজার ৮৮৯ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ২ হাজার ৬৬৮ জন এবং এখন পর্যন্ত ১ লাখ ৩২ হাজার ৯৬০ জন সুস্থ হয়েছেন।


বিভাগ : বাংলাদেশ