বেলাব বাজার পুণরায় বন্ধ ঘোষণা

১৮ মে ২০২০, ০৬:০৮ পিএম | আপডেট: ১৫ আগস্ট ২০২০, ০৩:২৩ এএম


বেলাব বাজার পুণরায় বন্ধ ঘোষণা

শেখ আ: জলিল:
পবিত্র ঈদুল ফিতরকে সামনে রেখে শর্তসাপেক্ষে খুলে দেয়ার দুই সপ্তাহের মধ্যেই আবারও নরসিংদীর বেলাব উপজেলা সদর বাজার সহ উপজেলার বারৈচা, পোড়াদিয়া, নারায়ণপুরসহ বিভিন্ন হাট বাজার পুণরায় বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। করোনা ভাইরাসের ঝুঁকি বেড়ে যাওয়ায় এবং ক্রেতা বিক্রেতারা স্বাস্থ্যবিধি না মানায় সোমবার (১৮ মে) সকালে বেলাব বাজারসহ উপজেলার অভ্যন্তরে বিভিন্ন বাজারের নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যাদির দোকান-পাট, কাঁচাবাজার ও জরুরী পরিসেবা ঔষধের দোকান ব্যতীত সকল প্রকার ব্যবসা বাণিজ্য, দোকান-পাট, শপিংমল বন্ধ করে দেয় প্রশাসন।

বেলাব উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, বেলাব উপজেলায় করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) এর বিস্তার রোধকল্পে আসন্ন ঈদ-উল ফিতর ও চলমান মাহে রমজান মাস উপলক্ষ্যে গত ১০ মে থেকে অত্র উপজেলার সকল ব্যবসা প্রতিষ্ঠান সীমিত পরিসরে সরকার নির্ধারিত শর্ত সাপেক্ষে খোলা রাখার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছিল। কিন্তু বাস্তব অবস্থাদৃষ্টে সর্বসাধারণ ও ব্যবসায়ীগণ সকলে সমাজিক দূরত্ব ও অন্যান্য স্বাস্থ্যবিধি সঠিকভাবে পালন না করার কারণে করোনার ঝুঁকি দিনদিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। ফলে ক্রেতা বিক্রেতাদের স্বাস্থ্যবিধির প্রতি অবহেলা এবং দোকানগুলোতে ক্রেতাগণের উপচেপড়া ভীড়ের কারণে করোনা প্রাদুর্ভাব ভয়াবহ আকার ধারন করার আশংকা থাকায় সকলের সাথে কথা বলে পুণরায় বাজার বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

সরেজমিনে বেলাব, নারায়ণপুর, পোড়াদিয়াসহ বিভিন্ন বাজারে গিয়ে দেখা যায় বাজারের কাপড়, জুতা ও কসমেটিকসের দোকানে ক্রেতা সাধারণের উপচে পড়া ভীড়। বাজারের অলিগলিতে পুরুষ ক্রেতাদের পাশাপাশি প্রচুর মহিলা ক্রেতা ঈদের কেনাকাটা করছেন। বেশির ভাগ ক্রেতা ও বিক্রেতাদের মুখে নেই কোন মাস্ক হাতে নেই গ্লাভস। তারা মানছে না কোন সামাজিক দূরত্ব।

বেলাব বাজার পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক দিদার হোসেন পিন্টু বলেন, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে যা যা করণীয় আমরা তাই করছি। তারপরও ক্রেতা সাধারণের ঢল আমাদের মাঝে আতংক সৃষ্টি করছে। আমরা চাই করোনাভাইরাসের কবল হতে বেলাব বাজারের ব্যবসায়ীমহল ও ক্রেতা সাধারণ নিরাপদে থাকুক।

বেলাব উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শামিমা শরমিন বলেন, পবিত্র ঈদ-উল ফিতর ও মাহে রমজানের কারণে গত ১০ মে শর্তসাপেক্ষে দোকানপাট খোলা রাখার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছিল। কিন্তু দেখা গেছে কেউ শর্ত মানছেন না, বাজারগুলোতে মানুষের উপচে পড়া ভীড়। এভাবে চলতে থাকলে করোনা ঝুঁকি অনেক বাড়বে এতে সন্দেহ নাই। তাই জনগণের স্বাস্থ্যঝুঁকির কথা বিবেচনা করে ১৮ মে হতে বেলাব উপজেলার অভ্যন্তরে নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যাদির দোকান-পাট, কাঁচাবাজার ও জরুরী পরিসেবা ঔষধের দোকান ব্যতীত সকল প্রকার ব্যবসা বাণিজ্য, দোকান-পাট, শপিংমল পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।