মনোহরদীতে ঘুমন্ত অবস্থায় আগুনে দগ্ধ যুবক, হাসপাতালে ভর্তি

২২ জুন ২০১৯, ০৭:২৪ পিএম | আপডেট: ১১ ডিসেম্বর ২০১৯, ১১:২৪ এএম


মনোহরদীতে ঘুমন্ত অবস্থায় আগুনে দগ্ধ যুবক, হাসপাতালে ভর্তি

মনোহরদী প্রতিনিধি:
নরসিংদীর মনোহরদীতে রাতের আঁধারে রহস্যজনক আগুনে ঘুমন্ত অবস্থায় ইকবাল হোসেন (৩০) নামের এক যুবক দগ্ধ হয়েছেন। শুক্রবার (২২ জুন) রাত একটার দিকে উপজেলার চালাকচর ইউনিয়নের মাছিমপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।
অগ্নিদগ্ধ ইকবাল মাছিমপুর গ্রামের মৃত ফজলুল করিমের ছেলে। গুরুতর আহত অবস্থায় রাতেই তাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
অগ্নিদগ্ধ ইকবালের স্বজনরা জানায়, শুক্রবার রাতে খাওয়া-দাওয়া শেষ করে বসত ঘরে ঘুমিয়ে পড়ে ইকবাল হোসেন। রাত একটার দিকে হঠাৎ তার ঘরে আগুন জ্বলতে থাকে। মুহুর্তেই এই আগুন পুরো ঘরে ছড়িয়ে পড়ে। আগুনের উত্তাপে ইকবাল ঘুম থেকে সজাগ হয়ে কোন রকম ঘর থেকে বাইরে বের হয়ে যায়। ততক্ষণে তার শরীরের প্রায় ২০ শতাংশ পুড়ে যায়। আগুনের সংবাদ পেয়ে এলাকাবাসী এবং ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা প্রায় আধা ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।
অগ্নিদগ্ধ ইকবালের বড় বোন হালিমা খাতুন জানান, ‘আগুনে ইকবালের দুই হাতের কনুই ও কোমরের নিচের অধিকাংশ অংশ পুড়ে গেছে। রাতেই মনোহরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়ে দেন। এ সময় ঘরের সিলিং ও কিছু প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র পুড়ে যায়। ধারণা করা হচ্ছে দুর্বৃত্তরা আমার ভাইকে পুড়িয়ে হত্যা করতে এই অগ্নি সংযোগের ঘটনা ঘটিয়েছে।’
মনোহরদী ফায়ার সার্ভিস ষ্টেশনের লিডার কাজী মো. নোমান বলেন, রাত ১:২০ মিনিটে ৯৯৯ থেকে ফোন পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনি। আগুনের সূত্রপাতের বিষয়টি রহস্যজনক। ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের কেউ তথ্য দিতে পারছেন না।
মনোহরদী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. মনিরুজ্জামান জানান, সংবাদ পেয়ে সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। ধারণা করা হচ্ছে বৈদ্যুতিক সর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত। এ বিষয়ে থানায় কেউ লিখিত অভিযোগ করেনি।