সাংবাদিক শামসুজ্জামানের মুক্তি ও ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবিতে নরসিংদীতে মানববন্ধন

৩১ মার্চ ২০২৩, ০৮:৫৪ পিএম | আপডেট: ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ০৬:৪৪ এএম


সাংবাদিক শামসুজ্জামানের মুক্তি ও  ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবিতে নরসিংদীতে মানববন্ধন


নিজস্ব প্রতিবেদক:

প্রথম আলোর সাংবাদিক শামসুজ্জামানের মুক্তি, সম্পাদক মতিউর রহমানের বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া মামলা প্রত্যাহার ও ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবিতে নরসিংদীতে মানববন্ধন হয়েছে। শুক্রবার বিকেল ৪টার দিকে শহরের নরসিংদী সরকারি কলেজের প্রধান ফটকের সামনে এই মানববন্ধন করে প্রথম আলো বন্ধুসভা।

বন্ধুসভার সদস্যদের পাশাপাশি মানববন্ধনে সংহতি জানিয়ে বিভিন্ন সংগঠনের সদস্য, কলেজ শিক্ষার্থী এবং বিভিন্ন গণমাধ্যমের সাংবাদিকরা অংশ নেন। এতে সভাপতিত্ব করেন নরসিংদী বন্ধুসভার সভাপতি প্রলয় জামান ও সঞ্চালনা করেন সাধারণ সম্পাদক রাকিবুল ইসলাম।

মানববন্ধনে বক্তব্য দেন মুক্তধারা নাট্য সম্প্রদায়ের সাধারণ সম্পাদক হাসান মাহমুদ, নরসিংদীর পরিবেশ আন্দোলন এর সভাপতি মঈনুল ইসলাম, দৈনিক ডেইলি স্টারের নরসিংদী প্রতিনিধি জাহিদুল ইসলাম, বন্ধুসভার দপ্তর সম্পাদক জিয়াউল হক, মুক্তিযুদ্ধ ও গবেষণা সম্পাদক আলমগীর হোসাইন, কার্যকরী সদস্য মো. আল আমিন, কাউসার মাহমুদ ও প্রথম আলোর নরসিংদী প্রতিনিধি প্রণব কুমার দেবনাথ।

মুক্তধারা নাট্য সম্প্রদায়ের সাধারণ সম্পাদক হাসান মাহমুদ বলেন, বাজারে চাল, ডাল, তেল, মাছ, মাংস, ডিম সবকিছুর দামই ক্রমাগত বাড়ছে। নিত্যপণ্যের দাম বৃদ্ধির খবর তুলে ধরায় রাতের আধারে সাংবাদিককে তুলে আনতে হবে কেন? সারাদেশে একের পর এক সাংবাদিক-সাধারণ মানুষ এই ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে গ্রেপ্তার হচ্ছেন। অনতিবিলম্বে আমরা ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিল চাই।

নরসিংদীর পরিবেশ আন্দোলন এর সভাপতি মঈনুল ইসলাম বলেন, কারাবন্দী প্রথম আলোর সাংবাদিক শামসুজ্জামানের নিঃশর্ত মুক্তি চাই। প্রথম আলোর সম্পাদক মতিউর রহমানসহ এই কালো আইনে যত সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে, সব মামলা প্রত্যাহার চাই। ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে আর একজনও গ্রেপ্তার হোক, চাই না।

দৈনিক ডেইলি স্টারের নরসিংদী প্রতিনিধি জাহিদুল ইসলাম বলেন, সংবাদ প্রকাশের পর কেউ সংক্ষুব্ধ হলে প্রেস কাউন্সিলে মামলা করার সুযোগ আছে। তারপরও ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মামলা করা কোনভাবেই কাম্য হতে পারে না। রাতের অন্ধকারে একজন সাংবাদিককে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পরিচয়ে বাসা থেকে তুলে নেওয়ার ঘটনা দেশে আইনের শাসনের পরিপন্থী। এই আইন বাতিল করতে হবে।

নরসিংদী বন্ধুসভার সভাপতি প্রলয় জামান বলেন, সাভারের সাংবাদিক শামসুজ্জামান ও প্রথম আলোর সম্পাদক মতিউর রহমানের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে করা মামলা পুরোপুরি হয়রানিমূলক। এভাবে চলতে থাকলে একসময় দেশে প্রকৃত সাংবাদিকতাই থাকবে না। সাংবাদিকদের সুস্থ পরিবেশে কাজ করার সুযোগ তৈরি করতে এই কালো আইন এখনই বাতিল করতে হবে।



এই বিভাগের আরও