নরসিংদীতে প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে গিয়ে.....

১৯ নভেম্বর ২০১৯, ০৭:০৬ পিএম | আপডেট: ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯, ১২:১৭ পিএম


নরসিংদীতে প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে গিয়ে.....

নিজস্ব প্রতিবেদক:
নরসিংদীতে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে ডাকাতির নাটক সাজিয়ে প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে গিয়ে ফেঁসে গেলেন ১১ জন। মঙ্গলবার (১৮ নভেম্বর) দিবাগত রাত ২টার দিকে নরসিংদী শহরতলীর হাজীপুর ইউনিয়নের বাদুয়ারচর এলাকার রুপচাঁন মিয়ার বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

আটককৃতরা হলেন, বাদুয়ারচর এলাকার রুপচাঁন (৪৫), আব্দুল আউয়াল (৫৫), আ: সাত্তার (৫০), হানিফা (৩০), মোজাহিদ (২০), আকিব (১৭), মোমেনা খাতুন (৪২), মিনার (২৫), হিরন মিয়া (৫৫) সহ আরো ২ জন।

এলাকাবাসী জানায়, জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে দীর্ঘদিন ধরে একই এলাকার সেলিম ভূঁইয়ার সাথে রুপচাঁন গং এর বিরোধ চলে আসছিলো। এরই জের ধরে সেলিম ভূঁইয়াকে ফাঁসানোর জন্য নিজ বাড়িতে ডাকাতির নাটক সাজায় রুপচাঁন মিয়া। রাত ২ টার দিকে ডাকাতির ঘটনা জানিয়ে মসজিদের মাইক দিয়ে মাইকিং করা হয়। এসময় ওই এলাকায় টহল ডিউটিতে ছিলো নরসিংদী সদর মডেল থানার উপ পরিদর্শক সুমন ও সঙ্গীয় ফোর্স। ডাকাতির ঘটনার মাইকিং শুনে সাথে সাথে টহলরত পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে। এসময় ঘটনাস্থল থেকে হাতেনাতে ২ জনকে আটক করে পুলিশ। পরে নরসিংদী সদর হাসপাতাল থেকে বাকি ৯ জনকে আটক করা হয়।

নরসিংদী সদর মডেল থানার উপ পরিদর্শক এস আই সুমন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, রাতে টহলরত অবস্থায় থাকাকালে মসজিদের মাইকিংয়ে শুনতে পাই ডাকাতির খবর। সাথে সাথে ঘটনাস্থলে গিয়ে ২ জনকে আটক করে জানতে পারি ডাকাতির ঘটনা সাজানো ও পূর্বপরিকল্পিত। প্রতিপক্ষকে ফাঁসানোর জন্য নিজেরা ডাকাতির নাটক সাজিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলো। পরে হাসপাতাল থেকে আরো ৯ জনকে আটক করা হয়। পরে এলাকাবাসী স্থানীয়ভাবে মীমাংসা করবেন মর্মে আটককৃতদের নিয়ে গেছেন।