পলাশে দীর্ঘ ৮ বছর পর উপজেলা আ.লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন

১৫ মে ২০২২, ০৩:৫৭ পিএম | আপডেট: ২৯ জুন ২০২২, ১২:৪৫ পিএম


পলাশে দীর্ঘ ৮ বছর পর উপজেলা আ.লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন

আল-আমিন মিয়া:
দীর্ঘ আট বছর পর আগামীকাল সোমবার নরসিংদীর পলাশ উপজেলা আওয়ামীলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। সকাল ১০ টা থেকে উপজেলার পলাশ থানা সদর মডেল উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে এ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। সম্মেলনকে কেন্দ্র করে আওয়ামীলীগ ও এর সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের মাঝে উৎসাহ-উদ্দীপনা বিরাজ করছে।

সম্মেলকে স্বাগত জানিয়ে নেতাকর্মীরা ঘোড়াশাল পৌর শহরসহ উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় তোরণ নির্মাণ করেছেন। লাগানো হয়েছে ফেস্টুন-ব্যানার। পুরো উপজেলায় দলীয় নেতাকর্মীদের মধ্যে বইছে উৎসবের আমেজ। সম্মেলনে প্রায় ১০ হাজার নেতাকর্মীর বসার জন্য বিশাল প্যান্ডেল করা হয়েছে।

উপজেলা আ.লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সভাপতি মন্ডলীর সদস্য ও কৃষিমন্ত্রী ড. মোঃ আব্দুর রাজ্জাক প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বলে জানা গেছে। পলাশ উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও স্থানীয় সংসদ সদস্য ডাঃ আনোয়ারুল আশরাফ খান দিলিপের সভাপতিত্বে এ সম্মেলনে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি, শিল্পমন্ত্রী এড. নুরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ুন, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম (এমপি), মহিলা বিষয়ক সম্পাদক মেহের আফরোজ চুমকি (এমপি)।
আরও উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য রাজিউদ্দিন আহমেদ রাজু (এমপি), বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের শিক্ষা ও মানব সম্পদ বিষয়ক সম্পাদক শামসুন নাহার চাঁপা, কার্য নির্বাহী সদস্য এড. এ.বি.এম রিয়াজুল কবির কাউছার, নারী সাংসদ তামান্না নূসরাত বুবলী ও পলাশের সাবেক সংসদ সদস্য কামরুল আশরাফ খান পোটন প্রমুখ।

ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে উদ্বোধক হিসেবে থাকবেন নরসিংদী জেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জি.এম তালেব হোসেন। এদিকে উপজেলা আওয়ামীলীগের ত্রি-বাষিক সম্মেলনকে সফল ও স্বার্থক করার লক্ষ্যে ঘোড়াশাল শহর আ.লীগ ও ইউনিয়ন আ.লীগসহ আ.লীগের প্রতিটি ইউনিট ইতিমধ্যে বর্ধিত সভা করেছেন। তবে উপজেলা আ.লীগের এ সম্মেলনে সভাপতি নয়, সাধারণ সম্পাদক নির্বাচনে প্রাধান্য দিচ্ছেন তৃণমূল নেতাকর্মীরা। আর উপজেলা পর্যায়ে নেতা নির্বাচনে সাধারণ সম্পাদক পদেই হবে মূলত লড়াই। যোগ্য নেতৃত্ব আর নেতা নির্বাচনে কেউ কেউ নীরব ভূমিকা পালন করছেন।

জানতে চাইলে উপজেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কবির মৃধা বলেন, ২০১৪ সালের ১৯ ডিসেম্বর সম্মেলনের মাধ্যমে আমি উপজেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হই। এরপর থেকে দলকে সুসংগঠিত করার লক্ষ্যে তৃণমূলে আ.লীগের নিবেদিত একজন কর্মী হিসেবে কাজ করেছি। এবারের আ.লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে সাধারণ সম্পাদক পদে একাধিক প্রার্থীর নাম শোনা যাচ্ছে। তবে আমি বিশ^াস করি, আ.লীগের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী ভোটাভোটির মাধ্যমে তৃণমূলের নেতাকর্মীরা তাদের যোগ্য নেতা নির্বাচিত করবেন।



এই বিভাগের আরও