ডাঙ্গায় ইটভাটায় কৃষিজমির মাটি বিক্রি: মাটিকাটার যন্ত্রপাতি জব্দ করল প্রশাসন

১৭ মার্চ ২০২৪, ০৮:২৭ পিএম | আপডেট: ২৩ মে ২০২৪, ১১:৫৩ এএম


ডাঙ্গায় ইটভাটায় কৃষিজমির মাটি বিক্রি: মাটিকাটার যন্ত্রপাতি জব্দ করল প্রশাসন

পলাশ প্রতিনিধি:
নরসিংদীর পলাশ উপজেলার ডাঙ্গা ইউনিয়নে জোরপূর্বক কৃষিজমির মাটি বিক্রির ঘটনায় নরসিংদী টাইমসসহ বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশের পর অভিযান পরিচালনা করেছে উপজেলা প্রশাসন। রোববার (১৭ মার্চ) উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোহাম্মদ শহিদুল্লাহ’র নির্দেশে ভ্রাম্যমান আদালতের এ অভিযান পরিচালনা করা হয়।

ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান পরিচালনা করেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) এইচ এম ফখরুল হোসাইন। এসময় কাউকে আটক করতে না পারলেও এক্সকাভেটর (ভেকুমেশিন) এর ব্যবহৃত সরাঞ্জাম, তেল ও ব্যাটারি জব্দ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোহাম্মদ শহিদুল্লাহ।

ইউএনও জানান, তিন ফসলি কৃষিজমি থেকে অবৈধভাবে মাটি কেটে নিয়ে যাওয়া ও কৃষিজমিতে অবৈধভাবে বালু ভরাট করার বিরুদ্ধে জেলা প্রশাসকের নির্দেশে আমরা অবস্থানে রয়েছি। যারা এসব কাজে জড়িত হবে, তাদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য অভিযান অব্যাহত থাকবে।

উল্লেখ্য, উপজেলার ডাঙ্গা ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামের কৃষকদের নামমাত্র মূল্য দিয়ে মাটি কেটে নেওয়া হচ্ছে। আবার অনেককে ভয়ভীতি ও হুমকি দিয়ে জোরপূর্বক জমির মাটি কেটে নেওয়া হচ্ছে। ডাঙ্গা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি নাদিম ও তার বড় ভাই শফিকুল ইসলাম হিরণ ও আরিফ মিয়ার নেতৃত্বে ডাঙ্গা ইউনিয়নের জয়নগর গ্রামে কৃষি জমির মাটি এক্সকাভেটর (ভেকুমেশিন) বসিয়ে ২৫ থেকে ৩০ ফুট গর্ত করে জোর পূর্বক কেটে নেওয়া হচ্ছে বিভিন্ন ইটভাটায়। দীর্ঘদিন ধরে প্রশাসনের চোখের সামনে মাটিসন্ত্রাস হলেও ঘটনার সঙ্গে ক্ষমতাসীন দলের নেতা-কর্মীরা জড়িত বলে ব্যবস্থা নিচ্ছে না প্রশাসন। এমন অভিযোগ ছিল ভুক্তভোগী কৃষক বোরহান মিয়াসহ অন্য কৃষকদের। এ নিয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হওয়ার পর বিষয়টি নজরে আসে উপজেলা প্রশাসনের।

 



এই বিভাগের আরও