পলাশে পাওনাদার কুপিয়ে আহত: প্যানেল চেয়ারম্যানসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে মামলা

১৯ এপ্রিল ২০১৯, ০৬:২৩ পিএম | আপডেট: ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০১:৩৪ পিএম


পলাশে পাওনাদার কুপিয়ে আহত: প্যানেল চেয়ারম্যানসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে মামলা

পলাশ প্রতিনিধি ॥
নরসিংদীর পলাশ উপজেলায় হানিফ মিয়া (২৫) নামে এক পাওনাদারকে চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর আহত ও তার বাড়িঘরে হামলার ঘটনায় ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান জালাল উদ্দিনসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৮ এপ্রিল) রাতে পলাশ থানায় মামলাটি দায়ের করেন আহত হানিফের বড় ভাই নবিউল্লাহ।
মামলার প্রধান আসামী জালাল উদ্দিন উপজেলার ডাঙ্গা ইউনিয়নের কাজৈর গ্রামের ৪ নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য। এছাড়া তিনি ওই ইউনিয়নের প্যানেল চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্বে রয়েছেন। মামলার অন্য আসামীরা হলেন, মেম্বার জালাল উদ্দিনের ছেলে মাসুম মিয়া, চাচাতো ভাই জাকির হোসেন ও ভাগিনা ফারুক মিয়াসহ অজ্ঞাত আরও ৫জন।
বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পলাশ থানার ওসি (তদন্ত) গোলাম মোস্তফা। তিনি জানান, গত শনিবার (১৩ এপ্রিল) ডাঙ্গা ইউনিয়নের ভিরিন্দা গ্রামের হানিফ নামে এক যুবকের ওপর ওই ইউনিয়নের প্যানেল চেয়ারম্যান জালাল উদ্দিনের নেতৃত্বে সশস্ত্র হামলা হয়। হামলাকারীরা হানিফকে চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে। এছাড়া তার বাড়িতে হামলা করে ঘরে থাকা বিভিন্ন আসবাবপত্র ভেঙে ফেলে। এ ঘটনায় আহত হানিফের ভাই অভিযুক্ত জালাল উদ্দিনকে প্রধান আসামী করে ১০ জনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করেছেন। তিনি আরও জানান, আহত হানিফ জালাল উদ্দিনের কাছে মাটি বিক্রির টাকা পাওনা ছিলেন। পাওনা টাকা চাইতে গিয়ে হানিফ ও তার পরিবার এই হামলার শিকার হন। মামলা দায়েরের পর থেকে অভিযুক্ত ইউপি সদস্য ও তার সহযোগীরা পলাতক রয়েছে। তাদের আটকে পুলিশি অভিযান অব্যহত রয়েছে।