রায়পুরার বাকী উন্নয়ন করা আমার কর্তব্য: শিল্পমন্ত্রী

১৩ জুলাই ২০১৯, ০৫:৫৬ পিএম | আপডেট: ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৩:০৪ পিএম


রায়পুরার বাকী উন্নয়ন করা আমার কর্তব্য: শিল্পমন্ত্রী
বক্তব্য রাখেন শিল্পমন্ত্রী নুরুল মজিদ মাহমুদ

মোমেন খান:
নরসিংদীর রায়পুরা উপজেলাকে এখন আর দুর্গম অঞ্চল বলা যায় না। আমার মামার (রায়পুরার এমপি রাজু) নেতৃত্বে এখানকার যথেষ্ঠ উন্নয়ন কাজ হয়েছে। আমার মামা যেটুকু উন্নয়ন কাজ করেছেন, তারপরও যদি কিছু বাকী থেকে থাকে সেটুকু আমি করে দেব, ইনশাল্লাহ। রায়পুরার বাকী উন্নয়ন করাটা আমার কর্তব্য বলে আমি মনে করি।


শনিবার (১৩ জুলাই) দুপুরে রায়পুরা উপজেলা আওয়ামী লীগ কর্তৃক দেয়া এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে সংবর্ধিত অতিথির বক্তব্যে নরসিংদী-৪ (মনোহরদী-বেলাব) আসনের সাংসদ ও শিল্পমন্ত্রী নুরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন এসব কথা বলেন।
তিনি আরও বলেন, আজকে এখানে (রায়পুরায়) আমি সংবর্ধনা নিতে আসিনি, আমার মামাকে (এমপি রাজু) সংবর্ধনা দিতে এসেছি। আমরা নরসিংদী জেলায় ঐক্যবদ্ধ দল গড়ে তুলবো।


শিল্পমন্ত্রী বলেন, কৃষি, শিল্প, শিক্ষা ও সভ্যতায় আমাদের নরসিংদী জেলা অনেক এগিয়ে গেছে। সারা বাংলাদেশে এখন আমাদের নরসিংদী জেলা একটি সমৃদ্ধশালী জেলা।

রায়পুরার শ্রীরামপুরে রাজি উদ্দিন আহমেদ অডিটরিয়ামে উপজেলা আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠন কর্তৃক শিল্পমন্ত্রীকে দেয়া সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আফজাল হোসাইন।
এসময় সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, নরসিংদী-৫ (রায়পুরা) এর সাংসদ প্রবীণ রাজনীতিবিদ রাজি উদ্দিন আহম্মেদ রাজু, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও নরসিংদী-১ (সদর) আসনের সাংসদ নজরুল ইসলাম হিরু, নরসিংদী-২ (পলাশ) এর সাংসদ ডা. আনোয়ারুল আশরাফ খান দিলীপ, নরসিংদী-৩ (শিবপুর) আসনের সাংসদ জহিরুল হক ভূঁইয়া মোহন, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুল মতিন ভূঁইয়া, নরসিংদী-৩ (শিবপুর) এর সাবেক সাংসদ সিরাজুল ইসলাম মোল্লা।

এসময় রায়পুরা উপজেলা আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীসহ জেলা আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।