শিবপুরে গুলিবিদ্ধ উপজেলা চেয়ারম্যান নিহতের প্রতিবাদে বিক্ষোভ, সড়ক অবরোধ

৩১ মে ২০২৩, ০৯:১৮ পিএম | আপডেট: ২০ জুন ২০২৪, ০৭:৪৮ এএম


শিবপুরে গুলিবিদ্ধ উপজেলা চেয়ারম্যান নিহতের প্রতিবাদে বিক্ষোভ, সড়ক অবরোধ

নিজস্ব প্রতিবেদক:

গুলিবিদ্ধ হওয়ার ৩ মাস পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন নরসিংদীর শিবপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা হারুনুর রশিদ খান (৭৫)। বুধবার (৩১ মে) বিকেলে রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে মারা যান তিনি।

তার মৃত্যুর খবরে স্থানীয় আওয়ামীলীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা শিবপুর উপজেলার বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভ মিছিলসহ সড়ক অবরোধ ও টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভ প্রদর্শন করছে। বিকেলে শিবপুরের কলেজ গেইট ও ইটাখোলা মোড়ে এই বিক্ষোভ কর্মসূচি করেন তারা। সন্ধ্যায় ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের ইটাখোলা মোড়ে সড়কে টায়ার জ্বালিয়ে অগ্নিসংযোগ করে বিক্ষোভকারীরা। এছাড়া মহাসড়কের কামারটেক, চৈতন্যা, সৃষ্টিঘর বাসস্ট্যান্ড এলাকায়ও টায়ারে আগুন দিয়ে বিক্ষোভ করা হয়। এসময় মহাসড়কের অন্তত দুই কিলোমিটার এলাকায় যানজটের সৃষ্টি হয়। প্রায় ২ ঘন্টা পর অবরোধ সরিয়ে নেয়া হলে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়।

এর আগে ২৫ ফেব্রুয়ারি সকালে উপজেলা সদরের নিজ বাসভবনে দূর্বৃত্তদের গুলিতে গুরুতর আহত হন বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদ। এরপর রাজধানী ঢাকা ও দেশের বাইরে চিকিৎসা নিয়েছেন তিনি। সবশেষ গত ১৯ মে অবস্থার অবনতি হলে তাকে রাজধানীর এভারকেয়ারের নিবিড় পর্যবেক্ষণ কেন্দ্র (আই সি ইউ) তে ভর্তি করা হয়। সেখানে মৃত্যু হয় তার।

শিবপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক শামসুল আলম ভূঁইয়া রাখিল বলেন, প্রিয় নেতার মৃত্যুতে স্থানীয় নেতাকর্মীরা উত্তেজিত হয়ে বিক্ষোভ ও সড়ক অবরোধ করেছে। আমরা চাই এই নেতার হত্যাকারীদের সুষ্ঠু বিচার হোক। বৃহস্পতিবার বাদ যোহর জানাজা নামাজের পরে আমরা দলীয় কর্মসূচি ঘোষণা করবো।

হারুনুর রশিদ খান দীর্ঘ ২৫ বছর শিবপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি দায়িত্ব পালন করেছেন। এছাড়া বর্তমানে শিবপুর উপজেলা পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান ছিলেন।



এই বিভাগের আরও