মালয়েশিয়ায় ৬ লাখ ও ইতালিতে ২ লাখ বাংলাদেশি গৃহবন্দি

১৯ মার্চ ২০২০, ০১:০৪ পিএম | আপডেট: ০৯ এপ্রিল ২০২০, ০৭:০০ এএম


মালয়েশিয়ায় ৬ লাখ ও ইতালিতে ২ লাখ বাংলাদেশি গৃহবন্দি
ছবি: প্রতীকী

টাইমস ডেস্ক:

ভয়াবহ করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) কারণে মালয়েশিয়ায় প্রায় ৬ লাখ বাংলাদেশি গৃহবন্দি অবস্থায় রয়েছেন। এছাড়া ইতালিতে প্রায় ২ লাখ বাংলাদেশির ভাগ্য অনিশ্চয়তায় পড়েছে। সরকারি ঘোষণায় বাধ্য হয়েই ঘরে বন্দী কর্মহীন জীবনযাপন করতে হচ্ছে তাদের। একইসঙ্গে বাড়ছে চরম উৎকন্ঠা-হতাশা ও দুশ্চিন্তা।

মালয়েশিয়া প্রবাসীরা জানান, সরকারের কঠোর রাজনীতির কারণে আমরা ঘর থেকে বের হতে পারছিনা, গ্রেপ্তার আতঙ্কে রয়েছি। সেই সঙ্গে প্রবাসীরা এখন জবলেস। হাসপাতাল, ফার্মেসি ও সুপারশপ ছাড়া সবকিছুই সাময়িক বন্ধ রাখা হয়েছে। সর্বসাধারণের চলাফেরা নিয়ন্ত্রণে নেয়া হয়েছে পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা। বিনা কারণে ঘর হতে বের হওয়ায় ইতোমধ্যে বেশ কয়েক জনকে জরিমানাও করা হয়েছে।

মালয়েশিয়ার মতো ইতালিতেও প্রায় ২ লাখ প্রবাসী বাংলাদেশি অনিশ্চিয়তায় দিন কাটাচ্ছেন। সরকারি তথ্য অনুযায়ী, ইতালিতে প্রায় দুই লাখ বাংলাদেশি প্রবাসী রয়েছে যারা রাজধানী রোম, মিলান, ভেনিসসহ অন্যান্য শহরে বাস করে। ইতালির শিল্পোন্নত শহর মিলানোতেই প্রথম হানা দেয় করোনা ভাইরাস। হাসপাতাল, ফার্মেসি ও সুপারসপ ছাড়া সবকিছুই বন্ধ রয়েছে গত ৪ দিন। কিন্তু এতোকিছুর পরও এখন পর্যন্ত করোনার হানা থামানো যায়নি।

প্রসঙ্গত, মহামারী আকারে ছড়িয়ে পড়া প্রাণঘাতী নভেল করোনাভাইরাসে প্রায় সারাবিশ্বে ছড়িয়ে পড়েছে। ডিসেম্বরের শেষদিকে চীনের উহান থেকে ছড়িয়ে পড়া প্রাণঘাতী এ ভাইরাসটি এখন ইউরোপ দাপিয়ে বেড়াচ্ছে।

ইতালির পাশাপাশি স্পেন, ফ্রান্স, জার্মানি ও যুক্তরাজ্যেও প্রতিদিন আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে। এখন পর্যন্ত বিশ্বজুড়ে ২ লাখ ১৯ হাজার ৮৭ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। অপরদিকে মারা গেছে ৮ হাজার ৯৬১ জন। এছাড়া চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছে ৮৫ হাজার ৬৭৩ জন।

এর মধ্যে ইতালিতে মোট মৃতের সংখ্যা এখন পর্যন্ত ২ হাজার ৯৭৮ জন। আক্রান্ত হয়েছে ৩৫ হাজার ৭১৩ জন। মালয়েশিয়ায় এখন পর্যন্ত ৭৯০ জন লোক কোভিড-১৯ ভাইরাসে আক্রান্ত এবং দুইজনের মৃত্যু হয়েছে।


বিভাগ : বিশ্ব