ভারতে ভারি বর্ষণের পর ভূমিধসে ৩৬ জনের প্রাণহানি

২৩ জুলাই ২০২১, ০৮:৫০ পিএম | আপডেট: ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪:০৪ পিএম


ভারতে ভারি বর্ষণের পর ভূমিধসে ৩৬ জনের প্রাণহানি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

টানা কয়েকদিনের ভারি বর্ষণের পর ভারতের মহারাষ্ট্রে ভূমিধসে ৩৬ জন নিহত হয়েছেন। এছাড়াও বৃষ্টিপাতের পর সৃষ্ট বন্যায় হাজারও মানুষ আটকা পড়েছেন। রাজ্যটির কঙ্কন অঞ্চলের রায়গড় জেলায় এই ঘটনা ঘটেছে। এনডিটিভি সূত্রে এতথ্য জানা যায়।

সংবাদমাধ্যমটি জানিয়েছে, প্রবল বৃষ্টিপাতের পর বন্যা ও ভূমিধসে বিপর্যস্ত রায়গড় জেলাটি মুম্বাই থেকে ৭০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত। দুর্যোগে আটকে পড়া মানুষকে উদ্ধারে কাজে লাগানো হচ্ছে হেলিকপ্টার।

এনডিটিভি আরও জানিয়েছে, বন্যা ও ভূমিধসের কারণে আটকে পড়া মানুষকে বাড়ির ছাদ বা আশপাশের উচু স্থানে অবস্থান নিতে বলা হয়েছে। হেলিকপ্টার থেকে তাদেরকে চিহ্নিত ও উদ্ধারের জন্যই এই আহ্বান জানিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন।

প্রতিবারই বৃষ্টিতে নাজেহাল পরিস্থিতির শিকার হন মহারাষ্ট্রের বাসিন্দারা। সে রাজ্যের একাধিক জেলার রাস্তাঘাট, ঘর-বাড়ি চলে যায় পানির নিচে। এবারও বর্ষা আসতেই ভয়াবহ চেহারা নিয়েছে মহারাষ্ট্রের একাধিক জেলা। সর্বশেষ মুম্বাই থেকে ৭০ কিলোমিটার দূরে রায়গড়ের তিনটি আলাদা এলাকায় ভূমিধসে প্রাণ গেছে অন্তত ৩৬ জনের।

নিহতদের মধ্যে ৩২ জনকে তালাই থেকে এবং বাকি ৪ জনের মরদেহ শখর সুতা ওয়াদি এলাকা থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। ধসে এখনও প্রায় ৩০ জন আটকে থাকতে পারেন বলে আশঙ্কা করছেন রায়গড়ের জেলা কালেক্টর নিধি চৌধুরী। যারা ওই এলাকায় আটকে পড়েছেন, তাদের উঁচু জায়গায় কিংবা ছাদে উঠে আসার পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে। যাতে হেলিকপ্টারের মাধ্যমে সেখানে থেকে তাদের উদ্ধার করা সম্ভব হয়।

এদিকে ঘটনাস্থলে জোরগতিতে উদ্ধারকাজ চালাচ্ছে ভারতীয় নৌবাহিনীর দু’টি ইউনিট, ১২টি স্থানীয় উদ্ধারকারী দল, উপকূলরক্ষীদের দু’টি দল এবং জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীর (এনডিআরএফ) তিনটি দল।


বিভাগ : বিশ্ব