পলাশে মানসম্মত শিক্ষা বাস্তবায়নে শিক্ষার্থীদের পাশে ইউএনও

২৫ জানুয়ারি ২০২৩, ০৭:০০ পিএম | আপডেট: ১৬ জুন ২০২৪, ১২:০৮ পিএম


পলাশে মানসম্মত শিক্ষা বাস্তবায়নে শিক্ষার্থীদের পাশে ইউএনও

নিজস্ব প্রতিবেদক:
নরসিংদীর পলাশ উপজেলায় প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ায় মনোযোগী করতে নিয়মিত বিদ্যালয় পরিদর্শন করে তদারকিসহ নানা উদ্যোগ নিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মোঃ রবিউল আলম। শিক্ষার্থীদের জড়তা কাটাতে উপজেলার সকল প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ল্যাংগুয়েজ ক্লাব গঠনের নির্দেশনা দিয়েছেন তিনি।

পাশাপাশি করোনায় ঝরেপড়া শিক্ষার্থীদের কীভাবে আবার লেখাপড়ায় মনোযোগী করে বিদ্যালয়মুখী করা যায় সেদিকে বিশেষ গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে। শিক্ষার মান বৃদ্ধিতে মানসম্মত প্রাথমিক ও মাধ্যমিক শিক্ষা বাস্তবায়নে এগিয়ে যাওয়ার লক্ষ্যে প্রতিদিন শৈত্যপ্রবাহকে উপেক্ষা করে উপজেলার বিভিন্ন বিদ্যালয় পরিদর্শনে যাচ্ছেন ইউএনও।
এছাড়া বিদ্যালয়ে নিয়মিত জাতীয় পতাকা উত্তোলন, শুদ্ধভাবে জাতীয় সংগীত পরিবেশন ও শরীর চর্চাসহ ক্লাসে শিক্ষকরা শিক্ষার্থীদের কিভাবে পাঠদান করছেন তা তদারকি করছেন। এতে করে শিক্ষার্থীরা উদ্যোমী হওয়াসহ শিক্ষার মান বৃদ্ধি পাচ্ছে বলে মনে করছেন শিক্ষক শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা। উপজেলা নির্বাহী অফিসার রবিউল আলম মানসম্মত প্রাথমিক ও মাধ্যমিক শিক্ষা বাস্তবায়নে শিক্ষকদের সাথে নিয়মিত মতবিনিময় সভা করছেন।

উপজেলা সহকারী শিক্ষা অফিসার দিলরুবা ইয়াছমিন বলেন, প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ক্ষুদে শিক্ষার্থীদের উজ্জীবিত করতে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মহোদয়ের আন্তরিকতা প্রশংসনীয়। তাঁর নিয়মিত পরিদর্শন, পরামর্শ এবং নির্দেশনা প্রাথমিক শিক্ষাকে আরো গতিশীল করবে বলে প্রত্যাশা করছি।

পলাশ উপজেলা শিক্ষা অফিসার মিলন কৃষ্ণ হালদার বলেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ রবিউল আলম সরকারের “ভিশন ২০৪১” এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে বর্তমান প্রজন্মকে স্মার্ট প্রজন্ম হিসেবে গড়ে তোলার প্রত্যয়ে প্রতিদিন কোন না কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছুটে যাচ্ছেন। সকালে শিক্ষার্থীদের এসেম্বলী পরিদর্শন করেন এবং শপথ বাক্য পাঠ করান, সাথে সাথে শিক্ষার্থীদের প্রেরনা মূলক শুভেচ্ছা উপহার এবং উপদেশ দেন। কোন প্রতিষ্ঠানে বিরতির সময় গিয়ে শিক্ষার্থীদের আলাদা করে মোটিভেশনাল পাওয়ার পয়েন্ট প্রেজেন্টেশনের মাধ্যমে তাদের ভিতরকার শক্তিকে জাগ্রত করার কাজ করছেন। এতে পলাশ উপজেলার শিক্ষার গুনগত মান আরও বৃদ্ধি পাবে বলে আমি মনে করি।

এ ব্যাপারে পলাশ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ রবিউল আলম বলেন, স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে গুণগত শিক্ষা হবে অন্যতম নিয়ামক। সেজন্য আমরা শিক্ষায় কিছু পদক্ষেপ গ্রহণ করেছি। ছাত্রছাত্রীদের উজ্জীবিত করতে ''know your potential'' শীর্ষক অধিবেশন চালু করেছি। এ অধিবেশনে মাদক, ইভটিজিং, বাল্যবিবাহ প্রতিরোধে ছাত্রছাত্রীদের ভূমিকা নিয়েও আলোচনা করা হয়। এতে ছাত্রছাত্রীরা সরাসরি ইউএনও এর সাথে তাদের মতামত শেয়ার করতে পারছে। এছাড়াও প্রতিটি বিদ্যালয়ে লাইব্রেরি কার্যক্রম বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। জোর দেওয়া হয়েছে বই পড়ার প্রতি। আমরা ইতোমধ্যে বিতর্ক প্রতিযোগিতায় কার্যক্রম চালু করেছি। যে ছাত্র-ছাত্রীটি সবসময় পেছনের বেঞ্চে বসে সেও যেন সামনের বেঞ্চে বসতে পারে আমরা এমন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছি। আমরা প্রতিটি বিদ্যালয়ে ক্রীড়া সামগ্রী প্রদান করছি।



এই বিভাগের আরও