শিবপুরে ডেকে নেয়ার পর কুপিয়ে হত্যা করা মরদেহ মিলল বিদ্যালয় মাঠে

১০ জুন ২০২৪, ০৮:৪৯ পিএম | আপডেট: ২০ জুন ২০২৪, ০১:৩৭ পিএম


শিবপুরে ডেকে নেয়ার পর কুপিয়ে হত্যা করা মরদেহ মিলল বিদ্যালয় মাঠে

শিবপুর প্রতিনিধি:

নরসিংদীর শিবপুরে আহমদুল কবির (৩৭) নামে এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। সোমবার (১০ জুন) সকালে উপজেলার চক্রধা ইউনিয়নের বাড়ৈগাঁও সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠ হতে তাঁর মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।


এর আগে রোববার দিবাগত রাতের কোন এক সময় এ হত্যার ঘটনা ঘটেছে বলে ধারনা পরিবার ও পুলিশের।

নিহত আহমদুল কবির বাড়ৈগাঁও গ্রামের মৃত আব্দুস সালামের ছেলে। শিল্পকারখানার সাবেক কর্মচারী ৬ মাস ধরে বেকার জীবনযাপন করছিলেন।

নিহতের ছোট ভাই মোঃ লেলিন জানান, রোববার রাত ১২ টার দিকে কয়েকজন লোক এসে আহমদুল কবিরের সাথে কথা বলার পর বাড়ী থেকে ডেকে নিয়ে যায়। পরে আজ সোমবার সকাল ৬টার দিকে খবর পাই বাড়ৈগাঁও স্কুল মাঠে আহমদুল কবিরের লাশ পড়ে আছে। পূর্ব শত্রুতার জেরে পরিকল্পিতভাবে তাকে হত্যা করা হয়েছে।


আহমদুল কবির ২০১৪ সালে তার চাচাত দুই ভাই জালাল ও খোরশেদ আলম হত্যা মামলার সাক্ষী ছিলেন বলেও জানান নিহতের ভাই লেলিন।

মরদেহের খবর পেয়ে শিবপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো: ফরিদ উদ্দিন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। তিনি জানান, কে বা কারা কী কারণে হত্যার ঘটনা ঘটিয়েছে, তা তদন্ত করা হচ্ছে। নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নরসিংদী সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ব্যাপারে থানায় হত্যা মামলা করার প্রস্তুতি চলছে।



এই বিভাগের আরও