ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কে স্বস্তিতে চলছে যানবাহন

১০ আগস্ট ২০১৯, ০৭:৫৫ পিএম | আপডেট: ২১ আগস্ট ২০১৯, ০৫:২১ পিএম


ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কে স্বস্তিতে চলছে যানবাহন

কুমিল্লা প্রতিনিধি:

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক দিয়ে স্বস্তিতেই চলাচল করছে সকল প্রকার যানবাহন। এতে নির্বিঘ্নে বাড়ি ফিরছেন ঈদে ঘরমুখো যাত্রীরা। শুক্রবার (৯ আগস্ট) ও শনিবার (১০ আগস্ট) সাপ্তাহিক ছুটি থাকায় ঈদের ছুটি শুরু হওয়ার আগেই বাড়ি ফিরতে পারছেন তারা। শনিবার (১০ আগস্ট) মহাসড়কের কুমিল্লার বিভিন্ন অংশে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, কুমিল্লার ১০৪ কিলোমিটার এলাকায় কোথাও কোনও যানজট নেই। নেই যানবাহনের ধীরগতি কিংবা বাড়তি চাপ।

এ বছরের ২৫ মে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের মেঘনা ও গোমতী নদীর ওপর নির্মিত সেতু চালু হওয়ার পর থেকে অবসান ঘটেছে এ রুটের চিরচেনা যানজটের। স্বস্তিতে বাড়ি ফিরতে পারছেন যাত্রীরা।

এই সড়কের কয়েকজন যানবাহন চালক জানান, মুন্সিগঞ্জের গজারিয়া প্রান্তে মেঘনায় দ্বিতীয় মেঘনা সেতু এবং কুমিল্লা দাউদকান্দি প্রান্তে গোমতী নদীর ওপর দ্বিতীয় গোমতী সেতু চালু হওয়ার পর থেকে মহাসড়কে যানজটের দেখা মেলেনি এ পর্যন্ত। তবে সেতুর ওপর উঠতে গিয়ে কিছু ভারী যানবাহন বিকল হয়ে পড়ায় প্রায় সময় জট সৃষ্টি হয়। তারপরও আগের মতো দীর্ঘ যানজট সৃষ্টি হয় না। স্বস্তিতেই মহাসড়কের চলাচল করা যাচ্ছে।’

শনিবার দুপুরে ঢাকা থেকে স্বপরিবারে কুমিল্লায় বাড়ির উদ্দেশে যাত্রা করেন আবদুল মালেক। তিনি ঢাকা থেকে বের হয়ে ১ ঘণ্টা ৫০ মিনিটের মাথায় কুমিল্লা ক্যান্টেনমেন্ট এসে পৌঁছেন। কোথাও কোনও যানজট চোখে পড়েনি বলে জানান তিনি। তিনি বলেন, ‘এর আগে গত ঈদুল ফিতর ছাড়া ঈদে কখনও এমন স্বস্তিতে ঢাকা থেকে ঈদযাত্রা করতে পারিনি।’

হিমাচল পরিবহনের চালক আবুল বাসার জানান, বর্তমান পরিবেশ বজায় থাকলে ঈদের আগের দিনও যাত্রীরা যানজট-যন্ত্রণা ছাড়া বাড়ি ফিরতে পারবেন।

কুমিল্লার দাউদকান্দি হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সরকার আবদুল্লাহ আল মামুন জানান, সেতুর দুই পাশে গাড়ির গতি স্বাভাবিক রাখতে আমাদের পুলিশ সদস্যরা কাজ করছেন।
কুমিল্লা জেলা হাইওয়ে পুলিশ সুপার নজরুল ইসলাম জানান, কুমিল্লার অংশে কোথাও কোনও যানজট নেই। সড়কের মোড়ে মোড়ে ট্রাফিক পুলিশ রয়েছে। নিয়মের বাইরে গিয়ে চালকরা যাত্রী ওঠা-নামা করালে ব্যবস্থা নেওয়ার বিধান রয়েছে। মহাসড়ক যানজট মুক্ত।


বিভাগ : বাংলাদেশ


এই বিভাগের আরও