কোরিয়ার উদ্যোক্তাদের বাংলাদেশে বিনিয়োগের পরামর্শ শিল্পমন্ত্রীর

১০ জুলাই ২০১৯, ০১:৪৭ পিএম | আপডেট: ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১০:৫৮ পিএম


কোরিয়ার উদ্যোক্তাদের বাংলাদেশে বিনিয়োগের পরামর্শ শিল্পমন্ত্রীর

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥

বাংলাদেশের ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প (এসএমই), চামড়াসহ অন্যান্য সম্ভাবনাময় শিল্পখাতে দক্ষিণ কোরিয়ার উদ্যোক্তাদের বিনিয়োগের পরামর্শ দিয়েছেন শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন এমপি। তিনি বলেন, দক্ষিণ কোরিয়ার সাথে বাংলাদেশের দীর্ঘ বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক রয়েছে। এদেশের উন্নয়নে দক্ষিণ কোরিয়ার অংশীদারিত্ব উল্লেখ করার মত। এটি অব্যাহত রেখে গুণগত শিল্পায়নের ধারা জোরদারের মাধ্যমে উভয় দেশই লাভবান হতে পারে।

বাংলাদেশে নিযুক্ত দক্ষিণ কোরিয়ার রাষ্ট্রদূত হু ক্যাং-ইল আজ বুধবার (১০ জুলাই) শিল্পমন্ত্রীর সাথে সাক্ষাৎ করতে এলে মন্ত্রী এ পরামর্শ দেন। শিল্প মন্ত্রণালয়ে এ সাক্ষাতকার অনুষ্ঠিত হয়।

এ সময় শিল্পসচিব মোঃ আবদুল হালিম, যুগ্ম সচিব ইয়াসমিন সুলতানাসহ বাংলাদেশে দক্ষিণ কোরিয়ার দূতাবাসের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠকে দ্বিপাক্ষিক স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিষয়ে আলোচনা হয়। এ সময় বাংলাদেশের শিল্পখাতে কোরিয়ার বিনিয়োগ, শিল্প প্রযুক্তি স্থানান্তর, দক্ষিণ কোরিয়ার প্রধানমন্ত্রীর বাংলাদেশ সফরসহ অন্যান্য বিষয় আলোচনায় স্থান পায়।

দক্ষিণ কোরিয়ার রাষ্ট্রদূত বাংলাদেশের সাম্প্রতিক অর্থনৈতিক অগ্রগতি ও শিল্পায়নের প্রশংসা করেন। তিনি বলেন, এক সময় দক্ষিণ কোরিয়ার মাথাপিছু আয় বাংলাদেশের চেয়ে কম থাকলেও শিল্পায়ন, উদ্ভাবন এবং পরিশ্রমের মাধ্যমে দেশটির অর্থনীতি বর্তমান অবস্থানে দাঁড়িয়েছে। তিনি বাংলাদেশের পরিশ্রমী জনগণের ভূয়সী প্রশংসা করেন এবং পরিকল্পিত শিল্পায়নের মাধ্যমে এ দেশ অল্প সময়ের ব্যবধানে অর্থনৈতিক স্বাবলম্বিতার কাক্সিক্ষত গন্তব্যে পৌঁছতে সক্ষম হবে বলে আশা প্রকাশ করেন। বাংলাদেশে উদীয়মান শিল্পখাতে দক্ষিণ কোরিয়ার বিনিয়োগ অব্যাহত থাকবে বলে তিনি জানান।

রাষ্ট্রদূত কোরিয়ার প্রধানমন্ত্রীর বাংলাদেশ সফর উপলক্ষে আয়োজিত কর্মসূচি সম্পর্কে শিল্পমন্ত্রীকে অবহিত করেন। তিনি কোরিয়া-বাংলাদেশ বিজনেস ফোরামে অংশগ্রহণের জন্য মন্ত্রীকে আমন্ত্রণ জানান।

শিল্পমন্ত্রী মন্ত্রণালয় বাস্তবায়িত প্রকল্পগুলো পরিদর্শন করে শিল্পখাতে বাংলাদেশের সাম্প্রতিক অর্জন সম্পর্কে ধারণা নেয়ার জন্য রাষ্ট্রদূতকে পরামর্শ দেন। তিনি রাষ্ট্রদূতের আমন্ত্রণ গ্রহণ করেন এবং ফোরামে সংক্ষিপ্ত আলোচনায় অংশ নেবেন বলে নিশ্চিত করেন।


বিভাগ : অর্থনীতি