২৫ হাজার পাটকল শ্রমিককে পাঠানো হচ্ছে স্বেচ্ছা অবসরে

২৮ জুন ২০২০, ১১:৪০ পিএম | আপডেট: ১১ জুলাই ২০২০, ০৩:৪২ পিএম


২৫ হাজার পাটকল শ্রমিককে পাঠানো হচ্ছে স্বেচ্ছা অবসরে
ফাইল ছবি

অর্থনীতি ডেস্ক:

রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকলগুলোর প্রায় পঁচিশ হাজার স্থায়ী শ্রমিককে স্বেচ্ছা অবসরে (গোল্ডেন হ্যান্ডশেক) পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। রোববার (২৮ জুন) বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে আনুষ্ঠানিকভাবে বিষয়টি জানান। এসময় পাটকলগুলোতে লোকসান হচ্ছে বলে সরকার চিন্তা করেছে শ্রমিকদের গোল্ডেন হ্যান্ডশেক দিয়ে এই খাতকে এগিয়ে নিতে হবে বলে জানা তিনি।

বস্ত্র ও পাট সচিব লোকমান হোসেন মিয়া বলেন, পাটকলগুলোতে ২৪ হাজার ৮৮৬ জন স্থায়ী কর্মচারী রয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী নির্দেশনা দিয়েছেন, গোল্ডেন হ্যান্ডশেকের মাধ্যমে শ্রমিকদের চাকরির অবসান করতে। পাটকল শ্রমিকদের গোল্ডেন হ্যান্ডশেক দেওয়ার পর পিপিপির (সরকারি-বেসরকারি অংশীদারিত্ব) আওতায় পাটকলগুলোর আধুনিকায়ন করে উৎপাদনমুখী করা হবে। তখন এসব শ্রমিক সেখানে চাকরি করার সুযোগ পাবেন।

২০১৩ সাল থেকে এ পর্যন্ত ৮ হাজার ৯৫৪ জন পাটকল শ্রমিক অবসরে গেছেন জানিয়ে সচিব বলেন, অর্থ সংকটে তাদের অবসর ভাতা দেওয়া এখনও সম্ভব হয়নি।

সংবাদ সম্মেলনে বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী বকেয়সহ সব টাকা একসঙ্গে শ্রমিকদের দেওয়ার নির্দেশনা দিয়েছেন। আগে যারা অবসরে গেছেন, তাদের সব টাকাও একই সঙ্গে পরিশোধ করতে বলেছেন। নতুন বাজেটের টাকা হাতে পাওয়ার পরই শ্রমিকদের সব টাকা দিয়ে দেওয়া হবে। আগামী সেপ্টেম্বর মাসের মধ্যে শ্রমিকদের সব টাকা এক সাথে দেওয়া হবে।… এজন্য ৪ হাজার ৮৬৯ কোটি টাকা লাগবে।
আগামী ছয় মাসের মধ্যে এসব পাটকল পিপিপি’র মাধ্যমে চালু করা হবে জানিয়ে গোলাম দস্তগীর বলেন, “তখন মিলগুলোতে এসব শ্রমিক চাকরি করতে পারবেন। মিলগুলোকে লোকসান থেকে বাঁচতে গিয়ে পিপিপির মাধ্যমে চালু করা হবে।”


বিভাগ : অর্থনীতি