দ্বিগুণ দামেও টিকিট পাচ্ছেন না প্রবাসীরা

০৪ মার্চ ২০২৩, ০৬:৫৩ পিএম | আপডেট: ২৫ মে ২০২৪, ০৬:৪৪ পিএম


দ্বিগুণ দামেও টিকিট পাচ্ছেন না প্রবাসীরা
সংগৃহিত ছবি

অর্থনীতি ডেস্ক:

চাহিদা বাড়ায় মালয়েশিয়া রুটের উড়োজাহাজ ভাড়া বেড়ে দ্বিগুণেরও বেশি হয়েছে। সম্প্রতি দেশটির শ্রম বাজার উন্মুক্ত হওয়ায় বিমানের টিকিট পাওয়াই দুস্কর হয়ে উঠেছে। সম্প্রতি এ রুটে যাত্রী বাড়ায় দ্বিগুণ দামেও টিকিট পাচ্ছেন না প্রবাসীরা।

এ রুটে ফ্লাইট সংখ্যা না বাড়লে টিকিটের দাম কমবে না বলে মনে করছেন এয়ার লাইন্স ব্যবসায়ীরা। তবে বিমান প্রতিমন্ত্রী বলছেন, প্রবাসীরা যাতে কম খরচে যাতায়াত করতে পারেন সে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

ঢাকা-কুয়ালালামপুর রুটে সরাসরি ফ্লাইট পরিচালনা করে- বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনস, ইউএস-বাংলা, মালয়েশিয়ান এয়ারলাইনসসহ ৫টি বিমান সংস্থা। আর বিভিন্ন জায়গায় বিরতি দিয়ে ফ্লাইট চালাচ্ছে- থাই এয়ারওয়েজ, শ্রীলংকান এয়ারলাইন্সসহ আরও ৬টি কোম্পানি। 

এ রুটের ভাড়া বিশ্লেষণে দেখা যায়, চলতি মাসের ২৫ তারিখে শুধু মালয়েশিয়া যেতেই গুণতে হবে ৬০ থেকে ৭০ হাজার টাকা। অথচ কয়েকদিন আগেও ৩০ থেকে ৩৫ হাজার টাকায় আসা-যাওয়া করেছেন প্রবাসীরা।

ট্রাভেল এজেন্সিগুলো বলছে, বিমান কোম্পানির সিন্ডিকেট হঠাৎ করেই ভাড়া দ্বিগুণ করেছে। এতে মালয়েশিয়া যাওয়ার খরচ বাড়ছে। আর বিমান প্রতিমন্ত্রী বলছেন, মধ্যপ্রাচ্য রুটের ভাড়া সহনীয় রাখতে নমনীয় সরকার। তবে চাহিদা বাড়ার কারণে ভাড়া বাড়তে পারে।

মালয়েশিয়া যেতে একজন প্রবাসী শ্রমিকের ৭৮ হাজার টাকা খরচ হওয়ার কথা থাকলেও বিমান ভাড়াসহ মোট খরচ ৪ লাখ টাকা ছাড়িয়ে যাচ্ছে।


বিভাগ : অর্থনীতি


এই বিভাগের আরও