আউটসোর্সিংয়ে বিশ্বে দ্বিতীয় স্থানে বাংলাদেশ: আইসিটি প্রতিমন্ত্রী

২২ জানুয়ারি ২০২০, ০২:৪৯ পিএম | আপডেট: ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৮:২৩ পিএম


আউটসোর্সিংয়ে বিশ্বে দ্বিতীয় স্থানে বাংলাদেশ: আইসিটি প্রতিমন্ত্রী
ছবি: সংগৃহীত

টাইমস তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক:

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, আউটসোর্সিংয়ে বাংলাদেশের অবস্থান বর্তমানে বিশ্বে দ্বিতীয়। দেশে ৬ লাখ আইটি ফ্রিল্যান্সার কাজ করছে, কিন্তু তাদের আয়ের পরিমাণ অন্যান্য দেশের তুলনায় কম। তাই নতুন নতুন প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে ফ্রিল্যান্সারদের আরো এগিয়ে যেতে হবে। মঙ্গলবার মিরপুরের বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ব্যাংক ম্যানেজমেন্ট (বিআইবিএম) মিলনায়তনে ‘ব্যাংকিং খাতে আউটসোর্সিং বিষয়ে কর্মপরিকল্পনা প্রণয়ন’ বিষয়ক কর্মশালার সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।

আধুনিক ব্যাংকিং পদ্ধতি গড়ে তুলতে সরকার সর্বাত্মক সহায়তা করবে উল্লেখ করে আইসিটি প্রতিমন্ত্রী বলেন, প্রযুক্তির ব্যবহারের মাধ্যমে ব্যাংকিং সেক্টরকে ক্যাশলেস ও পেপারলেস সেক্টর হিসেবে গড়ে তোলার মাধ্যমে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে কাজ চলছে।

জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে তথ্য প্রযুক্তি বিভাগ ৫৬ টি মন্ত্রণালয়ে পৃথক পৃথক ডিজিটাল সার্ভিস ডিজাইন ল্যাব (ডিএসডিএল) প্রতিষ্ঠা করছে। এরইমধ্যে ২৩ মন্ত্রণালয়কে এর আওতায় আনা হয়েছে। এ সময় তিনি দেশীয় শিল্পের বিকাশ ঘটাতে পাবলিক -প্রাইভেট পার্টনারশিপ পদ্ধতিতে এগিয়ে যাওয়ার ওপর জোর দেন। একইসঙ্গে প্রতিমন্ত্রীর কর্মশালার তথ্য, উপাত্ত ও প্রাপ্ত সুপারিশগুলো কাজে লাগিয়ে দেশের আউটসোর্সিং খাতকে এগিয়ে নিতে সংশ্লিষ্ট সবার প্রতি আহ্বান জানান।

অনুষ্ঠানে বিআইবিএমের মহাপরিচালক মো. আক্তারুজ্জামান, তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের এলআইসিটি প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক মো. রেজাউল করিম, বাক্য-এর সভাপতি ওয়াহীদ শরীফ, এলআইসিটির পলিসি এডভাইজার শামি আহমেদ ও বিআইবিএম-এর পরিচালক ড. শাহ মোহাম্মদ আহসান হাবীব প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।



এই বিভাগের আরও