লাউ-এর রয়েছে নানাবিধ উপকারিতা

২৯ নভেম্বর ২০১৯, ০৯:০০ পিএম | আপডেট: ১০ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৬:১৪ পিএম


লাউ-এর রয়েছে নানাবিধ উপকারিতা

টাইমস জীবনযাপন ডেস্ক:

লাউ আমাদের দেশের একটি জনপ্রিয় সবজি যা অনেকের কাছেই প্রিয় একটি খাবার। লাউ সাধারণত শীতকালে বসতবাড়ির আশপাশে চাষ হয় তবে এখন প্রায় সারা বছরই লাউ চাষ করা হয়। লাউ একই সঙ্গে সুস্বাদু এবং পুষ্টিকর একটি সবজি। কারণ লাউয়ে প্রচুর পরিমাণ ভিটামিন, গুরুত্বপূর্ণ খনিজ উপাদান ও জল থাকার পাশাপাশি এতে উপকারি ফাইবার থাকে। লাউ মাছের তরকারি হিসেবে, লাবড়া, নিরামিষ, ভাজি, বড়া কিংবা সালাদ হিসেবেও খাওয়া যায়। এছাড়া লাউয়ের পাতা ও ডগা শাক হিসেবে খাওয়া যায়। আসুন জেনে নেই লাউ এর উপকারিতা এবং অসাধারণ কিছু পুষ্টি গুণের কথা...

(১). ওজন কমতে সাহায্য করে: কম ক্যালরির খাবার হিসেবে লাউ আদর্শ খাবার। লাউয়ে প্রচুর পরিমাণে ডায়েটারি ফাইবার থাকে এবং খুবই কম ক্যালোরি ও ফ্যাট থাকে যা ওজন কমাতে অত্যন্ত সহায়ক। রক্তের কোলেস্টেরল কমতেও সাহায্য করে লাউ।

(২). হার্টের জন্য ভালো: লাউ এ কলেস্টেরল এর পরিমাণ শূন্য যা হার্টের স্বাস্থ্যের জন্য ভালো। এতে বিদ্যমান ভিটামিন সি এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্টসমূহ হার্টের জন্যে খুবই স্বাস্থ্যকর। ক্যালরির পরিমাণ কম থাকায় ডায়াবেটিস রোগীদের জন্যও লাউ যথেষ্ট উপকারী।

(৩). হজমে সাহায্য করে: লাউয়ে প্রচুর পরিমাণে দ্রবণীয় ও অদ্রবণীয় ফাইবার এবং জলকে। দ্রবণীয় ফাইবার খাবার সহজে হজম করতে সাহায্য করে এবং হজম সংক্রান্ত সকল সমস্যা যেমন- কোষ্ঠকাঠিন্য, পেট ফাঁপা ও এসিডিটির সমস্যা সমাধানে সাহায্য করে। যাদের পাইলসের সমস্যা আছে তাদের জন্য লাউ খাওয়া অনেক উপকারী।

(৪). শরীর ঠান্ডা করে: গরমের কারণে বা ঘামের সময় আমাদের শরীর থেকে যে জল বের হয়ে যায় লাউ সেটার অনেকটাই পূরণ করে ফেলে। লাউ এ মূল উপাদান হলো জল (৯৬%) তাই লাউ খেলে শরীর ঠান্ডা থাকে। তাই গরমের সময় লাউ খাওয়া উপকারী বিশেষ করে যারা প্রখর সূর্যতাপে কাজ করেন তাদের হিটস্ট্রোক প্রতিরোধে সাহায্য করে লাউ।

(৫). ভালো ঘুম হতে সাহায্য করে: লাউ পাতা রান্না বা ভর্তা করে খেলে মস্তিষ্ককে ঠান্ডা রাখে এবং ঘুমের সমস্যা সমাধানে সাহায্য করে। এই সবজি দেহের তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে। ইনসমনিয়া বা নিদ্রাহীনতা দূর করে পরিপূর্ণ ঘুমের জন্য গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

(৬). ত্বকের জন্য উপকারী: লাউ কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে পেট পরিষ্কার রাখে, ফলে মুখে ব্রণ ওঠার প্রবণতাও কমে যায় অনেকটাই। ত্বকের ভেতর থেকে পরিষ্কার করতে সাহায্য করে লাউ, যাদের ত্বক তৈলাক্ত তাদের ত্বকের তৈলাক্ততার সমস্যা অনেকটাই কমে যায় লাউ খেলে।

তাছাড়া লাউয়ের প্রচুর পরিমাণে জল পস্রাবের জ্বালা পোড়ার সমস্যা এবং পস্রাবের হলদে ভাব দূর করে, তাই যাদের এইসব সমস্যা আছে তাদের নিয়মিত লাউ খাওয়া উচিত। এছাড়া ডায়রিয়া, উচ্চমাত্রার জ্বর এবং অন্য কোন স্বাস্থ্যসমস্যার কারণে শরীর থেকে ঘামের মাধ্যমে বের হয়ে যাওয়া জলের প্রতিস্থাপনে সাহায্য করে লাউ এবং ডায়াবেটিসের রোগীদের অত্যধিক তৃষ্ণা কমাতেও সাহায্য করে। এছাড়াও জন্ডিস ও কিডনির সমস্যার সমাধানেও উপকারী ভূমিকা রাখে লাউ।


বিভাগ : জীবনযাপন