বেলাবতে স্ত্রীর ওপর এ কেমন বর্বরতা!

২৯ জুলাই ২০১৯, ০৭:৩৪ পিএম | আপডেট: ২২ আগস্ট ২০১৯, ১০:১৬ পিএম


বেলাবতে স্ত্রীর ওপর এ কেমন বর্বরতা!

শেখ আব্দুল জলিল ॥
নরসিংদীর বেলাবতে জরায়ু ছিড়ে ফেলে স্ত্রীর ওপর বর্বর নির্যাতন চালিয়েছে আঃ রশিদ (২৬) নামে প্রবাস ফেরত এক স্বামী। গুরুতর আহতাবস্থায় খুকি বেগম (২২) নামের ওই গৃহবধুকে বেলাব উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। সোমবার দুপুরে (২৯ জুলাই) উপজেলার বিন্নাবাইদ গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে।


এঘটনার প্রতিবাদ করায় শশুড়কেও পিটিয়ে আহত করা হয়। এ ঘটনায় অভিযুক্ত স্বামীকে আটক করেছে পুলিশ। বেলাব থানার উপ-পরিদর্শক মোঃ বিল্লাল হোসেন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।


নির্যাতিত গৃহবধূ ও তার মা রাবিয়া বেগম নরসিংদী টাইমসকে অভিযোগ করে জানান, প্রায় আড়াই বছর আগে কিশোরগঞ্জের কটিয়াদী উপজেলার দশপাখি গ্রামের গোলাপ মিয়ার মেয়ে খুকি বেগমকে নরসিংদীর বেলাব উপজেলার বিন্নাবাইদ গ্রামের ফজলুল হকের ছেলে আঃ রশিদ এর নিকট বিয়ে দেয়া হয়। বিয়ের ১০/১৫ দিন পরেই রশিদ চাকুরির জন্য মালয়েশিয়ায় চলে যায়। মালয়েশিয়ায় যাওয়ার পর স্বামী আঃ রশিদ স্ত্রী খুকি বেগমের সাথে যোগাযোগ ও ভরনপোষণ দেয়া বন্ধ করে দেয়। এদিকে স্বামীর বাড়ির লোকজন খুকি বেগমকে বাবার বাড়ি হতে যৌতুক এনে দেয়ার জন্য শারিরীক ও মানসিকভাবে নির্যাতন শুরু করে। পরে বাধ্য হয়ে খুকি বেগম তার বাবার বাড়ি চলে যায়।


কিছুদিন আগে আঃ রশিদ প্রবাস থেকে দেশে ফিরে এলাকার কিছু লোক নিয়ে গিয়ে স্ত্রী খুকি বেগমকে তার বাবার বাড়ি হতে ফিরিয়ে নিয়ে আসে। এসময় খুকি বেগম স্বামীর শারীরিক দুর্বলতা, যৌতুকের জন্য নির্যাতনসহ প্রবাসে গিয়ে খোঁজ খবর না রাখার অভিযোগে স্বামীর বাড়ি ফিরে আসতে অনিহা প্রকাশ করে। এক পর্যায়ে সকলের অনুরোধে সে স্বামীর বাড়ি ফিরে আসে। স্বামীর বাড়িতে ফেরার পরই খুকি বেগম এর উপর নতুন করে শুরু হয় শারিরীক ও মানসিক নির্যাতন। স্ত্রী খুকি বেগম আর সংসার করবে না বলে স্বামী আঃ রশিদের মনে সন্দেহ সৃষ্টি হয়। এই সন্দেহ থেকেই স্ত্রী খুকি বেগম যাতে দ্বিতীয়বার আর কাউকে বিয়ে করে সংসার করতে না পারে সেজন্য সোমবার দুপুরে ঘরের দরজা বন্ধ করে আটকিয়ে আঙ্গুল দিয়ে খুকির জরায়ু ছিড়ে ফেলা হয়। স্পর্শকাতর স্থানে পাশবিক এ নির্যাতনের ফলে খুকী বেগম গুরুতর আহত হয়। পরে তাকে উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। খবর পেয়ে খুকির পিতা গোলাপ মিয়া এসে এ নির্যাতনের প্রতিবাদ জানালে তাকেও পিটিয়ে আহত করে স্বামী রশিদ।


আঙ্গুল ঢুকিয়ে নির্যাতন করার ফলে খুকির জরায়ু মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় একাধিক সেলাই দিতে হয়েছে এবং তার সুস্থ হতে অনেকদিন সময় লাগবে বলে জানিয়েছেন বেলাব উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক।
বিন্নাবাইদ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক এম জহিরুল ইসলাম বলেন, গৃহবধুকে আমরাই তার বাবার বাড়ি থেকে ফিরিয়ে এনেছিলাম। স্বামী রশিদ এর এমন নির্যাতন সত্যিই দুঃখজনক।

বেলাব থানার উপ-পরিদর্শক মোঃ বিল্লাল হোসেন নরসিংদী টাইমসকে বলেন, হাসপাতাল থেকে ফোন পেয়ে আমরা আঃ রশিদকে আটক করেছি। নির্যাতিত গৃহবধুর স্বজনদের ফোন করে থানায় আসতে বলা হয়েছে। তারা আসলেই অভিযোগ নেয়া হবে।