মনোহরদীতে আড়িয়াল খাঁ নদে নিখোঁজের ২১ ঘণ্টা পর কলেজ শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার

১০ আগস্ট ২০২০, ১১:০৩ পিএম | আপডেট: ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১২:১২ পিএম


মনোহরদীতে আড়িয়াল খাঁ নদে নিখোঁজের ২১ ঘণ্টা পর কলেজ শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার
নিজস্ব প্রতিবেদক:
নরসিংদীর মনোহরদীতে আড়িয়াল খাঁ নদে সাঁতার কাটতে গিয়ে নিখোঁজের ২১ ঘণ্টা পর এক কলেজ শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। সোমবার (১০ অাগস্ট) সকালে উপজেলার চরমান্দালিয়া ইউনিয়নের কৃষ্ণপুর গ্রামে নদের মাঝখান থেকে তাঁর মরদেহ উদ্ধার করেন স্থানীয়রা।
 
নদে ডুবে নিহত ওই যুবকের নাম মুহাম্মদ সোহেল রানা (২১)। সে উপজেলার চরমান্দালিয়া ইউনিয়নের মজিদপুর গ্রামের আবদুল কাদিরের ছেলে এবং রাজধানীর ঢাকা কলেজের ভূগোল ও পরিবেশবিদ্যা বিভাগের শিক্ষার্থী।
 
পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, করোনাভাইরাস সংক্রমণের কারণে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় সোহেল রানা দীর্ঘদিন ধরে নিজ বাড়িতে অবস্থান করছিল। রোববার দুপুর ১২টার দিকে সাতজন বন্ধুর সঙ্গে পুরাতন ব্রহ্মপুত্রের শাখা আড়িয়াল খাঁ নদের মাস্টারবাড়ি ব্রিজ এলাকায় গোসলে নামে সে। স্থানীয়ভাবে কলাগাছ সংগ্রহ করে তা নিয়ে তারা সাঁতার দিয়েছিলেন নদের অপর প্রান্ত চরগোহালবাড়িয়া এলাকার পাটারঘাটের উদ্দেশে। কিন্তু পাটারঘাটের কাছাকাছি আসার পরই হঠাৎ তীব্র স্রোতের টানে নদের পানিতে তলিয়ে যান সোহেল। তাকে উদ্ধার করতে ওই দিন মনোহরদী ও কিশোরগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের একাধিক দল চেষ্টা করে। পরে আজ সোমবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে নিখোঁজের ২১ ঘণ্টা পর ঘটনাস্থল থেকে প্রায় আধা কিলোমিটার দূরে নদের মাঝখানে তাঁর লাশ ভেসে উঠলে ওই মরদেহ উদ্ধার করে স্থানীয়রা।
 
মনোহরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মনিরুজ্জামান জানান, ওই শিক্ষার্থী তাঁর বন্ধুদের সঙ্গে কলাগাছ নিয়ে সাঁতরে নদ পার হতে গিয়ে নিখোঁজ হন। নিখোঁজের ২১ ঘণ্টা পর উপজেলার কৃষ্ণপুর গ্রামে নদের মাঝখানে তার লাশ ভেসে উঠলে তা উদ্ধার করেন স্থানীয়রা। এই ঘটনায় একটি অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে।