করোনাভাইরাস: নরসিংদীতে সচেতনতা তৈরিতে পুলিশী তৎপরতা অব্যাহত

২৫ মার্চ ২০২০, ০৯:০২ পিএম | আপডেট: ১০ এপ্রিল ২০২০, ১১:৫৭ এএম


করোনাভাইরাস: নরসিংদীতে সচেতনতা তৈরিতে পুলিশী তৎপরতা অব্যাহত

নিজস্ব প্রতিবেদক:

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে জনগণের মধ্যে সচেতনতা তৈরিতে বুধবারও (২৫ মার্চ) তৎপরতা অব্যাহত রেখেছে নরসিংদী জেলা পুলিশ।

এসময় শপিংমল, দোকান-পাট, রাস্তার পাশের চায়ের দোকান, সেলুন, হোটেল-রেস্টুরেন্ট বন্ধ রাখা, গণজমায়েত নিরুৎসাহিতকরণে অভিযান চালানো হয়।

পুলিশ জানায়, সরকারী নির্দেশনা মোতাবেক কাঁচা বাজার, খাবার, ফার্মেসি, হাসপাতাল এবং জরুরি সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান ছাড়া সকল শপিংমল, দোকান-পাট, রাস্তার পাশের চায়ের দোকান, সেলুন, হোটেল-রেস্টুরেন্ট, সকল সাপ্তাহিক বাজার ও গবাদী পশুর হাট ইতোমধ্যে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। জরুরি সেবা দানকারী প্রতিষ্ঠান ছাড়া অন্যান্য সকল প্রতিষ্ঠান যাতে খোলা রাখতে না পারে সে লক্ষ্যে সমগ্র জেলায় অভিযান পরিচালনা করছে জেলা পুলিশ।

নরসিংদীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) জাকির হাসান নরসিংদী মডেল থানাধীন সদর এলাকায় শপিংমল, দোকান-পাট, রাস্তার পাশের চায়ের দোকান, সেলুন, হোটেল-রেস্টুরেন্ট যাতে কেউ খুলতে না পারে সে লক্ষ্যে অভিযান পরিচালনা করেন।

পলাশ থানাধীন ঘোড়াশাল বাজার এলাকা এবং মাধবদী থানাধীন মাধবদী পৌরসভা ও পাঁচদোনা মোড়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) শাহেদ আহমেদ অভিযান পরিচালনা করেন। একই সাথে কাঁচা বাজার, ঔষুধ ফার্মেসীর ব্যবসায়ীগণ যাতে অতিরিক্ত দামে পণ্য বিক্রি করতে না পারে সেলক্ষ্যে কাঁচা বাজারসহ ঔষুধ ফার্মেসী পরিদর্শন করেন জেলা পুলিশের কর্মকর্তাগণ।

এছাড়া নরসিংদী সকল থানার অফিসার ইনচার্জগণ স্ব-স্ব থানাধীন কাঁচা বাজার, খাবার, ফার্মেসি, হাসপাতাল এবং জরুরি সেবা দানকারী প্রতিষ্ঠান ছাড়া অন্যান্য সকল দোকানপাট যাতে ব্যবসায়ীরা খুলতে না পারেন সে ব্যাপারে তৎপরতা বৃদ্ধি করেছে।

অতি জরুরী প্রয়োজন ছাড়া বাড়ির বাইরে না যাওয়ার জন্য মাইকিং এর মাধ্যমে সকলকে অবগত করা হচ্ছে। বিশেষ প্রয়োজন ব্যতীত গণপরিবহন (বাস, ট্রেন, লেগুনা, অটোরিকশা, সিএনজি ইত্যাদি) ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকার জন্যও সকলকে অনুরোধ করা হচ্ছে।

এছাড়া বিভিন্ন গণপরিবহন ও টার্মিনালে জীবানুনাশক স্প্রে এর মাধ্যমে জীবানুমুক্ত করার কাজও অব্যাহত রেখেছে জেলা পুলিশ। জেলা পুলিশের জোরালো মনিটরিং অব্যাহত আছে এবং থাকবে বলে জানায় পুলিশ।