রায়পুরায় ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী নিহতের ঘটনায় হত্যা মামলা, প্রতিদ্বন্দ্বী রুবেল প্রধান আসামী

২৫ মে ২০২৪, ০৬:২৭ পিএম | আপডেট: ১৯ জুন ২০২৪, ০৭:৫২ পিএম


রায়পুরায় ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী নিহতের ঘটনায় হত্যা মামলা, প্রতিদ্বন্দ্বী রুবেল প্রধান আসামী
নিহত সুমন মিয়া

নিজস্ব প্রতিবেদক:

নরসিংদীর রায়পুরা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের প্রচারে গিয়ে হামলায় ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী সুমন মিয়া নিহতের ঘটনায় হত্যা মামলা হয়েছে। হামলার দুইদিন পর শুক্রবার দিবাগত রাতে নিহতের পিতা চরসুবুদ্ধি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নাসির উদ্দিন বাদী হয়ে হত্যা মামলাটি করেন।

রায়পুরা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাফায়েত হোসেন পলাশ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

ওসি জানান, মামলায় প্রতিদ্বন্দ্বী ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী উপজেলার মেথিকান্দা এলাকার আবিদ হাসান রুবেলকে প্রধান আসামী করা হয়েছে। এছাড়া মামলায় ২৬ জনের নাম উল্লেখসহ ৪০-৫০ জনকে অজ্ঞাত আসামী করা হয়েছে। মামলায় এখন পর্যন্ত দুইজনকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।


তৃতীয় ধাপের নির্বাচনী প্রচারনায় গত বুধবার (২২ মে) বিকালে রায়পুরার চরাঞ্চলের পাড়াতলী ইউনিয়নের মামদেরকান্দি এলাকায় যান তালা প্রতিকের ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী মোঃ সুমন মিয়া ও তার কর্মী সমর্থকরা।


এসময় প্রতিদ্বন্দ্বী অপর ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী চশমা প্রতিকের আবিদ হাসান রুবেল ও তার কর্মী সমর্থকরা মোঃ সুমন মিয়ার গাড়ি ভাংচুর করাসহ কর্মী সমর্থক ও তার ওপর হামলা করে। এসময় প্রাণ বাঁচাতে পালিয়ে অন্যত্র আশ্রয় নেয়ার পর স্থানীয়রা আহত সুমন মিয়াকে উদ্ধার করে রায়পুরা উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে পরীক্ষা নিরিক্ষার পর চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ময়নাতদন্ত শেষে বৃহস্পতিবার দুপুরে ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী সুমন মিয়ার মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করে পুলিশ। পরে দুই দফা জানাজা নামাজ শেষে তাকে দাফন করা হয়। তার মৃত্যুতে উপজেলা পরিষদের সব পদের নির্বাচন স্থগিত করেছে নির্বাচন কমিশন।

রায়পুরা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৫ জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৩ জন এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ২ প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছিলেন।



এই বিভাগের আরও