জম্মু-কাশ্মীরে ২৩ দিনে ৫৩১টি পাথর নিক্ষেপের ঘটনা

৩০ আগস্ট ২০১৯, ০৪:৪৩ পিএম | আপডেট: ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৫:১৪ এএম


জম্মু-কাশ্মীরে ২৩ দিনে ৫৩১টি পাথর নিক্ষেপের ঘটনা

আর্ন্তজাতিক ডেস্ক:

জম্মু-কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা প্রত্যাহারের পর ২৩ দিনে ৫৩১টি পাথর নিক্ষেপের ঘটনা ঘটেছে। বিভিন্ন ঘটনায় আহত হয়েছেন ৯১ জন। আহতদের মধ্যে ৭১ জন স্থানীয় মানুষ ও ২০ জন নিরাপত্তা কর্মী রয়েছেন। এছাড়া পাথর নিক্ষেপের ঘটনায় এক ট্রাক চালকের মৃত্যু হয়েছে।

জম্মু-কাশ্মীর প্রশাসনের পক্ষ থেকে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও প্রধানমন্ত্রীর দফতরে পাঠানো রিপোর্টে ওই তথ্য জানানো হয়েছে।

গত ৫ আগস্ট ৩৭০ ধারা বাতিলের সিদ্ধান্ত সংসদে পাস হওয়ার পরে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের আশঙ্কা ছিল কাশ্মীর অগ্নিগর্ভ হয়ে উঠতে পারে। কিন্তু বিগত ২৩ দিনে ছোটখাট বিক্ষোভ, সড়ক অবরোধ ও জমায়েতের দাবি করে প্রশাসনের পক্ষ থেকে স্বস্তি প্রকাশ করা হয়েছে।

সরকারি সূত্রের দাবি, জম্মুর অধিকাংশ স্থান স্বাভাবিক। কিন্তু পুঞ্চ ও বানিহালে বেশ কিছু অশান্তির ঘটনা ঘটেছে। পাথর নিক্ষেপ ও সড়ক অবরোধের ঘটনা সবচেয়ে বেশি ঘটেছে কাশ্মীর উপত্যকায়। সবচেয়ে বেশি বিক্ষোভ হয়েছে দক্ষিণ কাশ্মীরে।

কাশ্মীর প্রশাসনের দাবি, রাজ্যের ১০৩টি থানা এলাকার মধ্যে ৮১টি থেকে কারফিউ প্রত্যাহার করা হয়েছে। ৯৬টি টেলিফোন এক্সচেঞ্জের মধ্যে ৪৭টি এক্সচেঞ্জ এলাকায় ফোন পরিসেবা চালু হয়েছে। এ পর্যন্ত কমপক্ষে ২ হাজার বিক্ষোভকারীকে আটক করা হলেও তাদের অনেককে ছেড়েও দেয়া হয়েছে। এছাড়া ১৭৬ জনকে জননিরাপত্তা আইনে গ্রেফতার করে মধ্যপ্রদেশ ও উত্তরপ্রদেশের কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

এদিকে, গতকাল বৃহস্পতিবার ‘দ্য হিন্দু’কে উদ্ধৃত করে হিন্দি ওয়েবসাইট ‘দ্য ওয়্যার’ শ্রীনগর হাসপাতাল সূত্রের বরাত দিয়ে জানায়, গত ৫ আগস্ট জম্মু-কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা বাতিলের পরে কাশ্মীর উপত্যকায় পেলেটগানের ছররা গুলিতে ৩৬ জন আহত হয়েছেন। তবে উপত্যকার অন্যান্য জেলার পরিসংখ্যান পাওয়া যায়নি।

‘দ্য ওয়্যার’-এর রিপোর্টে আরও বলা হয়, জম্মু-কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা প্রত্যাহার করার পরে তিন দিনেই পেলেটগানের ছররা গুলিতে আহত কমপক্ষে ২১ তরুণকে শ্রীনগর শ্রী মহারাজা হরি সিং হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়া হয়। যদিও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ সরকারিভাবে কোনও তথ্য দিতে অস্বীকৃতি জানায়। হাসপাতালটির চিকিৎসক ও সেবিকারা বলেন, ৬ আগস্টের মতো ৭ আগস্ট আটজন আহতকে চিকিৎসার জন্য নিয়ে আসা হয় যাদের চোখ ও শরীরের অন্যত্র পেলেটগানের ছররা গুলির আঘাত ছিল।

ভারত সরকার জম্মু-কাশ্মীরের বাসিন্দাদের জন্য বিশেষ সুবিধা সম্বলিত ৩৭০ ধারা বাতিল করার পর থেকে রাজ্যটিতে বিক্ষোভ ও নিরাপত্তা বাহিনীর পদক্ষেপের কথা জানা গেলেও প্রশাসনের পক্ষ থেকে তা অস্বীকার করে সেখানকার পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে বলে জানানো হয়।


বিভাগ : বিশ্ব