বেলাবতে ব্যক্তি মালিকানাধীন জমির উপর দিয়ে নদ খনন বন্ধের দাবি

৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৬:৩৮ পিএম | আপডেট: ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৪:০৩ পিএম


বেলাবতে ব্যক্তি মালিকানাধীন জমির উপর দিয়ে নদ খনন বন্ধের দাবি

শেখ আব্দুল জলিল:
নরসিংদীর বেলাব উপজেলা এলাকায় ব্যক্তি মালিকানাধীন শত শত একর জমির উপর দিয়ে আড়িয়াল খাঁ নদ খননের অভিযোগ করেছেন এলাকাবাসী। বিআইডব্লিউটিএ কর্তৃক সিএস,আরএস খতিয়ান অনুযায়ী আড়িয়াল খাঁ’র খনন না করে কৃষকদের নিজস্ব জমির উপর দিয়ে নদ খনন করা হচ্ছে বলে দাবী কৃষকদের। এ খনন কাজ বন্ধে এলাকাবাসী বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন করেছেন।
রোববার (২৯ সেপ্টেম্বর) সকালে উপজেলার ভাওয়ালেরচর গ্রামের হাজারো নারী পুরুষ এ বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন করেন। এসময় সরকারের খাস জমির উপর দিয়ে আড়িয়াল খাঁ নদ খননের দাবী জানানো হয়। এ ছাড়া প্রায় প্রতিদিনই বিক্ষোভ করছেন স্থানীয় বাসিন্দারা।

এলাকাবাসী জানান, অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ নবারন ট্রেডার্স লিঃ এর ড্রেজার বেলাব উপজেলার ভাউয়ালেরচর মৌজার সীমানায় এসে প্রথমে সিএস নকশা মোতাবেক নদ খননের জন্য সীমানা নির্ধারণ করে। কিন্তু পরবর্তীতে রহস্যজনক কারণে নির্ধারিত সীমানায় নদ খননের প্রস্তুতি না নিয়ে এলাকার ব্যক্তি মালিকানা শত শত একর জমির উপর দিয়ে নদ খননের প্রস্তুতি নেয়। ভাঙ্গন কবলিত এলাকা ভাউয়ালের চর গ্রামবাসী এতে বাধা দেয় এবং বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ করেন। এতে আশ্বাস প্রায় ৩/৪ মাস ধরে ভাউয়ালেরচর গ্রাম এলাকায় নদ খনন বন্ধ থাকে। হঠাৎ করে গত কয়েকদিন আগে নদ খননের ড্রেজার বেরীবাঁধ রক্ষা করার অজুহাতে আবারও কৃষকের নিজস্ব জমির উপর দিয়ে আড়িয়াল খাঁ নদ খননের প্রস্ততি নিচ্ছে।

বিআইডব্লিটিএ সূত্রে জানা যায়, অভ্যন্তরীণ নৌপথের ৫৩টি রুটে ক্যাপিটাল ড্রেজিংয়ের আওতায় প্রথম পর্যায়ে ২৪ টি নৌপথ খনন শুরু হয়। ভৈরব-কটিয়াদী নৌপথে ৮৩ লাখ ঘনমিটার খননের জন্য চুক্তি হয় খুলনা শিপইয়ার্ড লিঃ ও নবারুন ট্রেডার্স লিমিটেডের মধ্যে। একশত এগার কোটি টাকার খননকাজের মধ্যে নরসিংদীর বেলাব উপজেলার পোড়াদিয়া এলাকায় আড়িয়াল খাঁ নদের প্রায় ৪০ কিলোমিটার খনন করা হবে। এর মধ্যে ২৯ কিলোমিটার খনন করা হয়েছে। কিন্তু সীমানা সংক্রান্ত জটিলতার কারণে কিছুদিন ভাওয়ালেরচর,নতুন বাজার, রাধাখালী এলাকার কিছু অংশে খনন কাজ বন্ধ ছিল।
ভাউয়ালেরচর গ্রামের আলতাব হোসেন ও বিন্নাবাইদ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জহিরুল ইসলাম জহির বলেন, আমাদের একটাই দাবি যেন এসএ, সিএস মোতাবেক যেন নদটি খনন করা হয়। বর্তমানে কৃষকের নিজস্ব জমির উপর দিয়ে নদটি অস্থায়ী ভাবে প্রবাহমান। সেখান দিয়ে যদি নদটি খনন করা হয় তাহলে ভাঙ্গন কবলিত এ এলাকার হাজারো মানুষ গৃহহীন হয়ে পড়বে।

এ ব্যাপারে বিআইডব্লিউটিএ এর এডিশনাল চিফ ইঞ্জিনিয়ার মোঃ সাইদুর রহমানকে না পেয়ে উনার ব্যক্তিগত মোবাইল নাম্বারে একাধিকবার ফোন দিলেও তিনি রিসিভ না করায় বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।

বেলাব উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শামিমা শরমিন বলেন, ভাউয়ালেরচর গ্রামের আড়িয়াল খাঁ নদ খননে সীমানা জটিলতা আছে, এটা আমি জানি কিন্তু এলাকাবাসি মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করেছেন এ খবর আমি জানি না।