বেলাবতে রিকশাচালকের বসতঘর ভাংচুর করে রাস্তা নির্মাণের অভিযোগ

২১ মে ২০২০, ০৮:১৮ পিএম | আপডেট: ২৬ মে ২০২০, ০২:৪০ পিএম


বেলাবতে রিকশাচালকের বসতঘর ভাংচুর করে রাস্তা নির্মাণের অভিযোগ

বেলাব প্রতিনিধি:
নরসিংদীর বেলাবতে আফসর উদ্দীন নামে এক রিকশাচালকের বসতঘর ভাংচুর করে রাস্তা নির্মাণের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় বেলাব থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন ভূক্তভোগী রিকশাচালক। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার পাটুলী ইউনিয়নের সুটুরিয়া গ্রামে।


অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, উক্ত গ্রামের মৃত মহর আলীর ছেলে রিকশাচালক আফসর উদ্দীনের সাথে জমি সংক্রান্তে বিরোধের জের ধরে গত ১২ মে রাতে আফসর উদ্দীনের ৩ টি কাঁঠাল গাছ, ১টি নিম গাছ কেটে এবং বসত ঘর ভাংচুর করে রাস্তা নির্মাণ করে সুটুরিয়া শাহ ইরানি গ্রামের নুরু মিয়ার ছেলে আলমগীর হোসেন ও একই গ্রামের সাইলা মিয়ার ছেলে জামাল মিয়া। এসময় আলমগীর হোসেন ও জামাল মিয়াকে রাস্ত নির্মাণে বাঁধা দিলে তারা তাকে গালিগালাজ সহ খুন করার হুমকি দেয়।


সরেজমিনে সুটুরিয়া গ্রামে গিয়ে দেখা যায়, সুটুরিয়া গ্রাম হতে পার্শ¦বর্তী মনোহরদী উপজেলার কালিদাকোনা গ্রাম পর্যন্ত ব্যক্তি উদ্যোগে মাটির রাস্তা নির্মাণের কাজ চলছে। উক্ত গ্রামের উদীয়মান শিল্পপতি মোঃ আলমগীর হোসেন এলাকাবাসির অনুরোধে তার নিজস্ব অর্থায়নে রাস্তাটি নির্মাণ করছেন। অতি গুরুত্বপূর্ণ এই রাস্তাটি দুই উপজেলার শত শত মানুষের অতি প্রয়োজনীয় বলে জানান এলাকাবাসী। উক্ত রাস্তার একটি স্থানে রিকশাচালক আফসর উদ্দীনের একটি পুরাতন ঘর ছিল। রাস্তার প্রয়োজনে উক্ত ঘরটি ভেঙ্গে ফেলা হয়েছে।
এলাকাবাসি জানান, এ রাস্তাটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি রাস্তা। রাস্তা নেয়ার ব্যাপারে আফসর উদ্দীনের সাথে এলাকাবাসির আগেই আলাপ আলোচনা হয়েছে। তার কথামতই এ স্থান দিয়ে রাস্তা নেয়া হচ্ছে।

রিকশাচালক আফসর উদ্দীন বলেন, আমি গরীব মানুষ। আমার জায়গা দিয়ে রাস্তা নেয়া হয়েছে এবং আমার একটি ঘর ভাংচুর সহ ৩টি কাঁঠাল গাছ ও ১টি নিম গাছ কেটে ফেলা হয়েছে। অথচ আমাকে কোন ক্ষতিপূরণ দেয়া হয়নি।

অভিযুক্ত আলমগীর হোসেন বলেন, এলাকাবাসির অনুরোধে আমি রাস্তা নির্মাণ করছি। রাস্তা নির্মাণের আগে ঐ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এলাকাবাসি উপস্থিত ছিলেন। আফসর উদ্দীনের সাথে আলোচনা করে উনার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী রাস্তা করা হচ্ছে। এখানে আমার কোন ব্যক্তিগত স্বার্থ নেই।

পাটুলী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ ইফরানুল হক ভূইয়া জামান বলেন, রাস্তাটি সুটুরিয়া ও কালিদাকোনা গ্রামসহ আশেপাশের কয়েক গ্রামের মানুষের জন্য গুরুত্বপূর্ণ। আফসর উদ্দীনের সাথে এলাকার লোকজনের কথা হয়েছে। উনি যেদিক দিয়ে বলেছেন সেদিক দিয়েই রাস্তা নির্মাণ করা হয়েছে।

বেলাব থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ ফখরুদ্দীন ভূইয়া বলেন, দীর্ঘদিন ধরে না কী এ রাস্তা দিয়ে রিকশা ভ্যান যেতে পারছে না গাছের কারণে। পরে এলাকার লোকজন মিলে রাস্তাটি তৈরী করেন। থানায় যেহেতু অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।