লন্ডনে ভারতীয় দূতাবাসের সামনে পাকিস্তানীদের বিক্ষোভ, ভাংচুর

০৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০১:৪৯ পিএম | আপডেট: ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১০:১৮ এএম


লন্ডনে ভারতীয় দূতাবাসের সামনে পাকিস্তানীদের বিক্ষোভ, ভাংচুর

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

লন্ডনস্থ ভারতীয় দূতাবাসের সামনে বিক্ষোভ করেছে ব্রিটিশ বংশোদ্ভূত পাকিস্তানিরা। কাশ্মীরে ৩৭০ ধারা বাতিলের বিরোধিতা করে করা এই বিক্ষোভের সময় তারা ভারতীয় দূতাবাসের জানালার কাঁচও ভেঙেছে। এ নিয়ে ব্রিটিশ সরকারের কাছে তীব্র প্রতিবাদ করেছে ভারত।

ব্রিটেনের বিভিন্ন জায়গা থেকে প্রায় ১০ হাজারের মতো ব্রিটিশ-পাকিস্তানি এসে জড়ো হয় ভারতীয় দূতাবাসের সামনে। কর্মসূচিটির নাম দেয়া হয়েছিল ‘কাশ্মীর ফ্রিডম মার্চ’। পাকিস্তান অধিকৃত কাশ্মীরের পতাকা হাতে বিক্ষোভকারীরা স্লোগান দিতে থাকেন ‘ইউ ওয়ান্ট ফ্রিডম’, ‘স্টপ শেলিং ইন কাশ্মীর’।

এসময় বিক্ষোভকারীরা দূতাবাসকে লক্ষ্য করে ডিম, টমেটো, জুতা, পাথর, স্মোক বোমা ছোড়ে মারে। এতে দূতাবাসের একাধিক জানালার কাঁচ ভেঙে যায়। পরে ওই ছবি টুইট করে ভারতীয় দূতাবাস। লন্ডনের মেয়র সাকিব খান নিজেও একজন পাকিস্তান বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ। তবে তিনি এই ঘটনার নিন্দা জানিয়েছেন। এক টুইট বার্তায় তিনি লিখেছেন, এ ধরনের আচরণ মেনে নেয়া যায় না। এর নিন্দা করছি।

এদিকে ভারতীয় দূতাবাস এক টুইট বার্তায় জানিয়েছে, মঙ্গলবার (৩ সেপ্টেম্বর) দূতাবাসের সামনে ফের বিক্ষোভ হয়েছে। দূতাবাস চত্বরের ক্ষতি করা হয়েছে।

এর আগে গত ১৫ আগস্টও ভারতীয় দূতাবাসের সামনে বিক্ষোভ করে কিছু মানুষ। তাদের হাতে ছিল খালিস্তান ও কাশ্মীরের পতাকা। পুলিশের ব্যারিকেড ভেঙে তারা এগোতে থাকলে পুলিশের সঙ্গে তাদের ধাক্কাধাক্কি হয়। তারপরই তারা দূতাবাস লক্ষ্য করে ডিম, পাথর, কাঁচের বোতল ছোড়ে।

ওই বিক্ষোভের পর ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনকে ফোন করেছিলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এ ব্যাপারে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাসও দেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। এরপরও গতকাল এই বিক্ষোভ করা হলো।


বিভাগ : বিশ্ব